মণ্ডপে হামলার আশঙ্কার বিষয়টিও উড়িয়ে দিচ্ছি না

নিজস্ব প্রতিবেদক;
  • প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০২১, ৯:৩৭ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ২ সপ্তাহ আগে
ছবি সংগৃহীত

পূজা মণ্ডপে হামলার ঝুঁকি দেখছেন না ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, হামলার আশঙ্কার বিষয়টিও উড়িয়ে দিচ্ছি না। অনলাইনে তাদের প্রচারণা চলমান রয়েছে। আর লোন উলফ যেটাকে বলে, একাকী উৎসাহী হয়ে হামলা চালানো, তার জন্য অনবরত পোস্ট দিয়ে যাচ্ছে।

রোববার রাজধানীর ঢাকেস্বরী মন্দিরে কেন্দ্রীয় পূজা মণ্ডপের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

মণ্ডপে নানান প্রচার-প্রচারণা তারা চালাচ্ছে জানিয়ে শফিকুল ইসলাম বলেন, তারা বলছে, বিশেষ করে রাতের বেলা যখন পুলিশ থাকবে না এবং মানুষ কম থাকবে- সে সময়টা বেছে নাও। আর যে কোনো একটি মণ্ডপে তোমরা হামলার জন্য তৈরি হও, এমন নানান প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে তারা। তবে তাদের প্রচারণায় কেউ উদ্বুদ্ধ হয়ে কোন কিছু করছে- এমন খবর আমাদের কাছে নেই। এরপরও আমরা সতর্ক রয়েছি। আমাদের যারা এ বিষয়ে কাজ করে তারা অ্যালার্ট রয়েছেন।

মন্দিরগুলোকে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় এনেছি জানিয়ে তিনি বলেন, ঢাকা শহরের বড় মন্দিরগুলোতে অতিরিক্ত সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হবে এবং সিসিটিভি কন্ট্রোল রুম করা হবে। আর ছোট মন্দিরগুলোতে পুলিশের মোবাইল টিম কাজ করবে। তবে ছোট মন্দিরগুলোতে পুলিশ সদস্য বেশি থাকবে না। কারণ পুলিশ সদস্যরা এক ব্যারাকে অনেকজন থাকে। কেউ আক্রান্ত হয়ে গেলে অনেক আক্রান্তের সম্ভাবনা থাকে।

প্রতিটি মণ্ডপের আশপাশের ডিবি পুলিশ, স্পেশাল ব্রাঞ্চ (এসবি) ও র‍্যাব সমন্বিতভাবে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলবে জানিয়ে ডিএমপি প্রধান বলেন, পুলিশ সাদা পোশাকেও সক্রিয় থাকবে। সবার প্রতি আমার অনুরোধ, এই উৎসবে কোনভাবেই স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করা যাবে না। আমাদের বর্তমান করোনা সংক্রমণের হার কমে ২ শতাংশ হয়েছে। এতে আত্মতৃপ্তিতে ভুগলে হবে না। কারণ চীনের উহানের একজন আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে কোটি কোটি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। তাই আমার অনুরোধ, আপনারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে মন্দিরে আসবেন।

‘‘যারা বয়স্ক এবং টিকা নেননি তাদেরকে পূজামণ্ডপে না আনার অনুরোধ করছি। আর যারা মাস্ক নিয়ে আসবেন না তাদেরকে পুলিশ সদস্যরা পূজামণ্ডপে প্রবেশ করতে দেবে না।’

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...