পাঞ্জাবকে হারিয়ে রাজস্থানকে চেন্নাইয়ের ‘উপহার’

সোমবার, ২১ মে, ২০১৮ ৬:১২:২৩ পূর্বাহ্ণ
0
116

খেলা ডেস্ক:

আইপিএলের প্লে অফ নিশ্চিতে আগে ব্যাট করে অন্তত ৫৩ রানে জয়ের ‘অসম্ভব’ লক্ষ্য পূরণ করতে হতো কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে। কিন্তু ব্যর্থ তারা। চেন্নাই ৫ উইকেটে জিতল, আর চতুর্থ দল হয়ে রাজস্থান রয়্যালস পেল প্লে অফের টিকিট।

১৪ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে থেকে রাজস্থান এলিমিনেটর খেলবে কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে। আর প্রথম কোয়ালিফায়ারের মঙ্গলবার মুখোমুখি হবে টেবিলের শীর্ষ দুই দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও চেন্নাই।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিদায়ে প্লে অফে ওঠার ‘অসম্ভব’ মিশনে চেন্নাই সুপার কিংসের মুখোমুখি হয়েছিল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। ১৪ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে থাকা রাজস্থান রয়্যালসকে হটিয়ে দিতে জিততে তো হতোই, সঙ্গে নেট রান রেটেও পেছনে ফেলতে হতো তাদের। আগে ব্যাটিং করা পাঞ্জাবকে এজন্য ৫৩ রানের ব্যবধানে জেতা দরকার ছিল।

এই ‘অসাধ্য’ সাধন করতে রানের পাহাড় গড়তে হতো ক্রিস গেইল-লোকেশ রাহুলদের। কিন্তু লুঙ্গি এনগিদির পেসে শুরুতেই বিরাট ধাক্কা খায় তারা। ৪ ওভারে ১৬ রানে প্রথম তিন উইকেট হারায় পাঞ্জাব। গেইল রানের খাতা না খুলে বিদায় নেন। লোকেশ আউট হন ৭ রানে।

দুই নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর মনোজ তিওয়ারি ও ডেভিড মিলারের ৬০ রানের জুটি স্বস্তি জাগায়। টানা দুই ওভারে দুজন আউট হন। তিওয়ারি ৩৫ ও মিলার ২৪ রানে থামেন। এরপর করুন নায়ার ছাড়া আর কেউ দৃঢ় ব্যাটিং করতে পারেননি। ২৬ বলে ৩ চার ও ৫ ছয়ে ৫৪ রান করেন তিনি। ১৯.৪ ওভারে ১৫৩ রানে অলআউট হয় পাঞ্জাব।

চেন্নাইয়ের পেসার এনগিদি ৪ ওভারে ১০ রান দিয়ে ১ মেডেনসহ সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন। শারদুল ঠাকুর ও ডোয়াইন ব্রাভো দুটি করে উইকেট পান।

প্লে অফ খেলতে চার নম্বর স্থানটি উদ্ধারে চেন্নাইকে ১০০ রানে আটকাতে হতো পাঞ্জাবকে। সেটা তো পারেইনি, বরং সুরেশ রায়নার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে হার মানতে হয় তাদের।

অথচ ৫৮ রানে চেন্নাইয়ের ৪ উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচে উত্তেজনা ফেরায় পাঞ্জাব। তবে দীপক চাহারের সঙ্গে রায়নার ৫৬ রানের ঝড়ো জুটিতে সহজ জয় পায় চেন্নাই। ২০ বলে ৩৯ রানে আউট হন চাহার ১টি চার ও ৩টি ছয়ের ইনিংস খেলে। রায়না ৪৮ বলে ৬১ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জেতান। মহেন্দ্র সিং ধোনি ১৬ রানে টিকে ছিলেন। ১৯.১ ওভারে ৫ উইকেটে ১৫৯ রান করে চেন্নাই।

পাঞ্জাবের পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন রাজপুত ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন।