কার দোষে রাজীবের মৃত্যু কমিটি গঠন করেছেন হাইকোর্ট

বুধবার, ৩০ মে, ২০১৮ ১০:১৬:০২ পূর্বাহ্ণ
0
120
নিজস্ব প্রতিবেদক

দুই বাসের চাপায় হাত হারানো তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হাসানের মৃত্যুর ঘটনায় দোষী শনাক্তে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) অ্যাকসিডেন্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মোয়াজ্জেম হোসেনকে প্রধান করে কমিটি গঠন করেছেন হাইকোর্ট।

আপিল বিভাগের নির্দেশ অনুযায়ী বুধবার বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছেন। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দু কুমার রায় জানান, এ বিষয়ে পরবর্তী আদেশের জন্য ৪ জুলাই দিন ঠিক করেছেন আদালত।

এই কমিটিকে আগামী ৩০ জুনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। কমিটির অপর সদস্য হিসেবে থাকবেন বুয়েটে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একজন শিক্ষক এবং নিসচা’র (নিরাপদ সড়ক চাই) চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন।

গত ২২ মে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ রাজীবের দুই ভাইকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ সংক্রান্ত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেন। একই সঙ্গে এ ঘটনায় তদন্ত করতে একটি স্বাধীন ও নিরপেক্ষ কমিটি করতে হাইকোর্টকে নির্দেশ দেন। ওই দিন আদালতে স্বজন পরিবহনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী আবদুল মতিন খসরু ও বিআরটিসির পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট এ বি এম বায়েজিদ। অপরদিকে, রাজীবের পরিবারের পক্ষে ছিলেন রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

গত ৮ মে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ রাজীবের দুই ভাইকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ১ কোটি টাকা দেওয়ার নির্দেশ দেন। এর মধ্যে বিআরটিসি ও ‘স্বজন পরিবহন’কে প্রাথমিক পর্যায়ে ২৫ লাখ টাকা করে ৫০ লাখ টাকা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ৩ এপ্রিল বিকেলে রাজধানীর কারওয়ান বাজারের সার্ক ফোয়ারার সামনে দুইবাসের রেষারেষিতে তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী রাজীব হোসেনের হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এরপর চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজীব মারা যায়। গত ৪ এপ্রিল রাজীবের মৃত্যুর ঘটনায় হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হলে আদালত এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দেন।