বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কোচ হলেন স্টিভ রোডস

বৃহস্পতিবার, ৭ জুন, ২০১৮ ২:১৩:০৯ অপরাহ্ণ
0
94
খেলা ডেস্ক

অবশেষে আট মাস পর নতুন কোচ পেল বাংলাদেশ। জাতীয় ক্রিকেট দলের নতুন কোচ হতে যাচ্ছেন স্টিভ রোডস। বৃহস্পতিবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছেন, ৫৪ বছর বয়সী এই ইংলিশকেই কোচ হিসেবে চূড়ান্ত করা হয়েছে।

২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত চুক্তিবদ্ধ হচ্ছেন রোডস। ২০ জুন থেকে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে তার কাজ শুরু করার কথা রয়েছে।

রোডসের এটাই কোনো জাতীয় দলের প্রথম দায়িত্ব নেওয়া। এর আগে ইংলিশ কাউন্টি দল উস্টারশায়ারের হয়ে কাজ করে নজর কেড়েছিলেন সাবেক এই টেস্ট খেলোয়াড়। মাঝারি মানের দলকে সাফল্য এনে দেওয়াতেও সুখ্যাতি আছে। যদিও তার সব অভিজ্ঞতা ইংলিশ কাউন্টি ঘিরে। উপমহাদেশের ক্রিকেট নিয়েও আগে কাজ করেননি। তবে আপাতত এটাই বাংলাদেশের বেশি কাজে আসতে পারে। ২০১৯ বিশ্বকাপ তো ইংল্যান্ডেই। রোডসের অভিজ্ঞতা বাংলাদেশকে পথ দেখাবে।

গত অক্টোবরে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের পদত্যাগের পর থেকেই বিসিবি নতুন কোচ খুঁজছিল। অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার, টম মুডি, মাহেলা জয়াবর্ধনে, কুমার সাঙ্গাকারা, জাস্টিন ল্যাঙ্গার, পল ফারব্রেসকে কোচ হওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হলেও তারা তা ফিরিয়ে দেন। রিচার্ড পাইবাস ও ফিল সিমন্স বিসিবিতে এসে সাক্ষাৎকার দিয়ে গিয়েছিলেন।

পরে তারা যথাক্রমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তানের সঙ্গে কাজ শুরু করেন। এরপর কোচ খোঁজার জন্য কিছুদিন আগে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ক্রিকেটার গ্যারি কারস্টেনকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেয় বিসিবি। মূলত কারস্টনের সুপারিশেই রোডসকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

রোডস আগামী সপ্তাহে ৫৪ বছরে পা দেবেন। ইংল্যান্ডের হয়ে তিনি ১১ টেস্ট ও ৯টি ওয়ানডে খেলেছেন। ২০০৬ সালে তিনি উস্টারশায়ারের কোচের দায়িত্ব পান। ইংলিশ কাউন্টি দলটির হয়ে ১৯৮৫ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত তিনি খেলেছেনও। কিন্তু গত বছর তাকে বরখাস্ত করে উস্টারশায়ার। এবং যুব বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচের পদ থেকেও তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। এই প্রথম তিনি কোনো জাতীয় দলের দায়িত্ব নিলেন।

ঠিক কী কারণে রোডসকে প্রধান কোচ করা হলো, সেটার ব্যাখ্যা দিয়েছেন নাজমুল হাসান, ‘আমাদের তিনজনের সংক্ষিপ্ত তালিকা ছিল। তিনি সেখানে এক নম্বরে ছিলেন। গ্যারি কারস্টেন যে তালিকা দিয়েছে, সেখানেও তার নাম ছিল। যেহেতু দুই তালিকায় তার নাম ছিল, এ কারণে তাকেই আমরা নিশ্চিত করলাম। তাকে এখনই পাওয়া যাবে। সব দিক বিবেচনা করে মনে হয়েছে, সেই ঠিক। সে বাংলাদেশ দলকে অনুসরণ করে এবং বিশ্বাস করে যে এই দলটাকে অনেক দূর নেওয়া যাবে।’

রোডস আগের কোচ হাথুরুসিংহের মতোই স্বাধীনতা পাবেন বলেও জানালেন বিসিবি সভাপতি, ‘হাথুরুসিংহের মতোই স্বাধীনতা তিনি পাবেন। কোচ হলেন শিক্ষকের মতো। তার ওপরে তো কথা বলার দরকার নেই। তার যে সব সমর্থন লাগবে, সব তাকে দেওয়া হবে। এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।’