বেলজিয়ামের কাছে ৩-০ গোলে মিশরের হার

বৃহস্পতিবার, ৭ জুন, ২০১৮ ১০:৪৮:১৮ পূর্বাহ্ণ
0
111

বুধবার রাতে বেলজিয়ামের মুখোমুখি হয়ে ৩-০ ব্যবধানে হার মেনে নিয়েছে মিশর। রাশিয়া বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাওয়ার আগে এটি ছিল শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ। এ খেলায় সালাহবিহীন মিশর ড্রও করতে পারেনি।

আগের ম্যাচে কলম্বিয়ার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করলেও এই ম্যাচে খুব একটা পাত্তা পায়নি মিশর। ম্যাচের শুরু থেকেই একের পর এক আক্রমণ শানিয়ে মিশরকে ব্যতিব্যস্ত করে রাখে বেলজিয়াম। শক্তিশালী কিছু আক্রমণ হলেও গোল হচ্ছিল না। কিন্তু ম্যাচের ২৭ মিনিটে কাঙ্খিত গোলের দেখা পেয়ে যায় বেলজিয়াম।

এ সময় ইডেন হ্যাজার্ড বল নিয়ে ডি বক্সের সামনে থেকে জোরালো শট নেন। তার নেওয়া শট রুখে দেন মিশরের গোলরক্ষক ইসাম এল হান্দারি। কিন্তু বলটি তালুবন্দি করতে পারেননি।

তার কাছ থেকে বল চলে যায় রোমেলু লুকাকুর কাছে। লুকাকু আলতো টোকায় জালে পাঠিয়ে দেন বল (১-০)। বেলজিয়ামের হয়ে এটা ছিল লুকাকুর ৩১তম গোল। আর এই গোলের সুবাদে তিনি বেলজিয়ামের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়ে গেলেন।

এর ১১ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হ্যাজার্ড। এ সময় ইয়ানিক কারাসকো বল নিয়ে বামপ্রান্ত দিয়ে ঢোকার চেষ্টা করেন। কিন্তু তার সঙ্গে সঙ্গে ছিলেন মিশরের একজন রক্ষণভাগের খেলোয়াড়।

অবস্থান সুবিধাজনক মনে না হওয়ায় বল বাড়িয়ে দেন পেনাল্টি বক্সের সামনে থাকা হ্যাজার্ডকে। হ্যাজার্ড বল পেয়েই জোরালো শট নেন। মিশরের গোলরক্ষক ঝাপিয়ে পড়লেও রুখতে পারেননি বলটিকে (২-০)।

শেষ গোলটি আসে যোগ করা সময়ে। গোলটি করেন ফেলিয়ানি। এ সময় বল নিয়ে ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়েন মিচি বাতসুয়ি। বল নিয়ে চলে যান ডানপ্রান্তের গোললাইনের পাশে।

মিশরের গোলরক্ষক মোহাম্মদ এল শেনাওয়ি বল ধরতে চলে যান সেখানে। কিন্তু সুযোগ বুঝে মিচি বল বাড়িয়ে দেন পেনাল্টি বক্সের মধ্যে থাকা ফেলিয়ানিকে। ফেলিয়ানি বল পেয়ে ফাঁকা পোস্টে জড়াতে ভুল করেননি (৩-০)।

বিশ্বকাপে মিশর রয়েছে ‘এ’ গ্রুপে। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ উরুগুয়ে, রাশিয়া ও সৌদি আরব। ১৫ জুন প্রথম ম্যাচে উরুগুয়ের মুখোমুখি হবে। এরপর রাশিয়া ও সৌদি আরবের সঙ্গে খেলবে তারা।