‘তরুণদের মাদক থেকে দূরে রাখবে যোগব্যায়াম’

বৃহস্পতিবার, ২১ জুন, ২০১৮ ১০:৫৩:০৪ পূর্বাহ্ণ
0
96
নিজস্ব প্রতিবেদক:

যোগব্যায়াম তরুণদের মাদক থেকে দূরে রাখবে বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ‘আন্তর্জাতিক যোগ দিবস-২০১৮’ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে যোগব্যায়াম নতুনভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এটা এখন বাংলাদেশেও চলে এসেছে।

দেশে মাদকের হিংস্র ছোবল দেখা দিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে শক্তিশালী অবস্থান নিতে পারে যোগব্যায়াম। এটা আমাদের তরুণদের ভালো কাজে উদ্বুদ্ধ করবে, মাদকের প্রভাব থেকে দূরে রাখবে।

সেতুমন্ত্রী আরো বলেন, যোগ ব্যায়াম করলে শরীর ও মন ভালো থাকবে। টেনশন দূর হয়। ঈর্ষা কাতরতা থাকবে না। মানসিক যন্ত্রণা দূর হবে। এসব তথ্য অবশ্য আমি ইন্টারনেট থেকে পেয়েছি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেন, যোগব্যায়াম ভারতীয় উপমহাদেশের মানুষের নিজস্ব সৃষ্টি। এতে কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। ধীরে ধীরে এই ব্যায়ামের জনপ্রিয়তা সারাবিশ্বেই বাড়ছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেন, ২১ জুন বছরের সবচেয়ে বড় দিন। আর এদিনেই পালিত হচ্ছে যোগ দিবস। ২০১৫ সাল থেকে প্রতিবছর ভারতীয় হাইকমিশন বাংলাদেশে যোগ দিবস পালন করে আসছে। প্রতিবছরই উপস্থিতি বাড়ছে। আপনাদের এতো বিপুল উপস্থিতি দেখে আমরা আনন্দিত।

তিনি আরও বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে আজ দেরাদুনে যোগ দিবস পালিত হচ্ছে। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধারা ভারতের এই দেরাদুনেই প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন।

এর আগে ‘সামঞ্জস্য ও শান্তির জন্য যোগ’ স্লোগানকে সামনে রেখে ভারতীয় দূতাবাসের আয়োজনে সকাল সাতটায় শুরু হয় এ অনুষ্ঠান। পরে যোগ প্রশিক্ষক মাম্পী দে’র পরিচালনায় যোগ সেশনে অংশ নেন পাঁচ হাজারেরও বেশি মানুষ। তাছাড়া গ্যালারিতে বসেও অনেকে যোগব্যায়ামের কলাকৌশল উপভোগ করেন।

চতুর্থবারের মতো আয়োজিত এ অনুষ্ঠানটি ছিল সবার জন্য উন্মুক্ত। সব অংশগ্রহণকারী বিনামূল্যে যোগ ম্যাট, টি-শার্ট, উপহার সামগ্রী পেয়েছেন। এছাড়া অনুষ্ঠানে লাকি ড্রয়ের মাধ্যমে পুরস্কার দেওয়া হয়। এসব পুরস্কারের মধ্যে ছিল একটি টাটা টিয়াগো গাড়ি, একটি বাজাজ মোটরসাইকেল,ভারতে ভ্রমণ প্যাকেজ, দু’জনের দিল্লি ট্রিপ, ঢাকায় পাঁচ তারকা হোটেলে দু’জনের থাকার সুযোগ।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ১১ ডিসেম্বর জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক যোগ দিবস ঘোষণা দেয়। ভারতের দেওয়া এই প্রস্তাবটি ১৭৫টি রাষ্ট্রের সমর্থনের মধ্য দিয়ে এ দিবসটি আন্তর্জাতিকভাবে এখন পালিত হয়ে আসছে। জাতিসংঘের কোনো প্রস্তাবের প্রতি এটিই ছিল সর্বোচ্চ সংখ্যক রাষ্ট্রের সমর্থনদানের রেকর্ড।