বাবার কাছ থেকে ৭ লাখ টাকা আদায়ে যুবকের অভিনব পন্থা!

মঙ্গলবার, ২৬ জুন, ২০১৮ ১০:৪০:৫৪ পূর্বাহ্ণ
0
164
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

বাবার কাছে সাত লাখ টাকার দাবিতে নিজ বাড়িতে ঘরে ছিটকিনি লাগিয়ে ১৫ দিন অনশনে ছিলেন আসিফ হায়দার। এমন খবর পেলে সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঘরের দরজা ভেঙে তাকে উদ্ধার উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। এ ঘটনা ঘটেছে ঝিনাইদহ শহরের বনানীপাড়ায়। আসিফ হায়দারের বাবার নাম হাফিজ উদ্দিন।

ঝিনাইদহ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক রফিকুল ইসলাম জানান, ‌‌গেল ২৫ রমজান থেকে বনানীপাড়ার ওই বাসার পঞ্চম তলার একটি কক্ষে নিজেকে বন্দি করে রাখেন আসিফ হায়দার। নিজেই ওই কক্ষে রাখা খাবার খেয়ে দিনযাপন করতেন। তবে, সব সময়ই সবার সাথে ফোনে কথা বলতেন।

সোমবার উদ্ধারে গিয়ে কথা বললে তিনি বার বার বলে, আমাকে বাঁচাতে এলে আমি আমার মতো ব্যবস্থা নেব। এভাবে দীর্ঘ চেষ্টার পর সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঘরের দুটি দরজা ভেঙে তাকে উদ্ধার করা হয়। এসময় আসিফ হায়দার ঘরে রাখা একটি গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন ধরিয়ে দেয়। এসময় আগুন নিভিয়ে তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উদ্ধারের কিছু সময় আগে হারপিক পান করে আসিফ।

স্থানীয় যুবক সেলিম হোসেন জানান, আসিফ দীর্ঘদিন ধরে নেশাগ্রস্ত ছিলেন। তিনি বিভিন্ন সময় বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে নেশা করতেন। নেশার জন্যই তিনি বাবার কাছে ৭ লাখ টাকা দাবি করে। বলে টাকা না দিয়ে ঘর থেকে বের হবে না, নিজেকে মেরে ফেলবে।

তবে, বিষয়টি অস্বীকার করে আসিফের বাবা (বিজিএমসি খুলনায় কর্মরত) শেখ হাফিজুর রহমান বলেন, ছেলে কোনো নেশাগ্রস্ত ছিল না। আসিফ মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন সময় এরকম করতো।  তার ছেলে ২০০৯ সাল থেকে পড়ালেখা ছেড়ে দিয়েছে। এর আগে সে পঞ্চম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছে। তার পরে সে আর স্কুলে যায়নি।

তিনি আরও জানান, চলতি মাসের ১১ তারিখ থেকে আসিফ তার মাকে ঘর থেকে বের করে দেয় এবং সেই থেকে সে ঘরের ভেতরে অবস্থান নিয়ে আছে আজ ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর শুরু করলে দমককল বাহিনীর সদস্যদের খবর দেন তিনি।

আসিফের মা জেলার কালীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান।