প্রতীক বরাদ্দের পরেই প্রচারে নামছেন মেয়র প্রার্থীরা

সোমবার, ৯ জুলাই, ২০১৮ ১০:৫২:০৬ পূর্বাহ্ণ
0
238
রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক) নির্বাচনে প্রার্থীদের এখনও প্রতীক বরাদ্দ করা হয়নি। যেহেতু দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করবেন মেয়র প্রার্থীরা তাই তারা পোস্টার, হ্যান্ডবিল ছাপানো শুরু করেছেন। বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে আওয়ামী লীগ-বিএনপি’র মেয়র পদপ্রার্থীরা পোস্টার লেমিনেটিং করছেন।

নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা ফরম অনুযায়ী, খায়রুজ্জামান লিটন নগরীর নিউমার্কেট গৌরহাঙ্গা এলাকার বিকল্প অফসেট প্রেসে দেড় লাখ পোস্টার, এক লাখ লিফলেট এবং ১৫ লাখ হ্যান্ডবিল নৌকা প্রতীক ছাপাচ্ছেন। বিএনপির প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ধানের শীষের প্রতীকে ছাপাচ্ছেন ৬০ হাজার পোস্টার, এক লাখ লিফলেট এবং ৩ লাখ হ্যান্ডবিল ছাপাবেন নগর ভবন সংলগ্ন গৌরহাঙ্গা এলাকার প্রভাত প্রিন্টিং প্রেস অ্যান্ড পাবলিকেশন। ছাপার কাজ এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে। তবে এখনও কোনও প্রার্থী পোস্টার টানায়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজশাহী জেলা নির্বাচন কমিশনার ও সহকারী রিটানিং কর্মকর্তা আতিয়ার রহমান বলেন, ‘আইনে স্পষ্ট বলা আছে প্রতীক বরাদ্দের আগে কোনও ধরনের প্রচার-প্রচারণা করা যাবে না। কাজেই প্রতীক বরাদ্দের আগে কোনও প্রার্থী প্রচারপত্র প্রকাশ করতে পারবেন না। তবে রাজনৈতিক দলের প্রার্থীদের প্রতীক নির্দিষ্ট থাকে। তাই দলের একক প্রার্থী থাকলে সে ছাপাখানায় ছাপিয়ে প্রতীক বরাদ্দ ঘোষণার পরপরই টানাতে পারবেন। এর আগে কেউ প্রচার করতে পারবে না। আর স্বতন্ত্র প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয় নির্বাচন কমিশন। তাই তাদের প্রতীক বরাদ্দের দিন নিতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘তফসিল অনুযায়ী রাসিক নির্বাচনের প্রার্থিতা প্রত্যাহার শেষ দিন ৯ জুলাই। ১০ জুলাই সকাল ১০টা থেকে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। এরপর থেকে শুরু হবে প্রার্থীদের প্রচারণা। সিটি করপোরেশনের ৩০টি ওয়ার্ডে ৩০ জুন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সংরক্ষিত আসনে ১০টি ওয়ার্ডে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট প্রচারণার সময় দায়িত্ব পালন করবে।’