শিক্ষকদের টিউশনির টাকা প্রধান শিক্ষকের পকেটে!

মঙ্গলবার, ১০ জুলাই, ২০১৮ ৯:৫১:১৭ পূর্বাহ্ণ
0
121
বরগুনা প্রতিনিধি:

বরগুনার আমতলী উপজেলার ছোট নীলগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের টাকা আত্মসাৎ, কমিটি গঠনে স্বজনপ্রীতিসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত মুনসুর আলী মুসুল্লির নাতি মো. মিজানুর রহমান মুসুল্লি বরগুনা জেলা প্রশাসক বরাবরে এ অভিযোগ করেন।

 

অভিযোগ থেকে জানা গেছে, মো. মোশাররফ হোসেন ২০১০ সালে উপজেলার ছোট নীলগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পরীক্ষার ফি’র নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়, ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠনে স্বজনপ্রীতি ও শিক্ষকদের টিউশন ফি’র টাকা আত্মসাৎ করছেন। এছাড়া শিক্ষার্থীর ছাড়পত্র, রেজিস্ট্রেশন ফি আদায়, বেতন, বিভিন্ন চাঁদা ও প্রশংসাপত্র বিতরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় করে আত্মসাৎ করেন। ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠনে নিয়মনীতি না মেনেই নিজের ইচ্ছামত কমিটি গঠন করেন।

 

অভিভাবক আবদুর রাজ্জাক মৃধা ও মোশারেফ হোসেন শিকদার জানান, ব্যবস্থাপনা কমিটি নির্বাচনে প্রধান শিক্ষক কোন অভিভাবক প্রতিনিধি মনোনয়ন করেননি। নিজের ইচ্ছামত প্রতিনিধি নির্বাচন করে কমিটি গঠন করেছেন।

 

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. নাসির উদ্দিন বলেন, টিউশন ফি’র টাকা কোন শিক্ষকদের না দিয়ে প্রধান শিক্ষক নিজেই আত্মসাৎ করছেন।

 

প্রধান শিক্ষক মো. মোশাররফ হোসেন বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা। আমাকে হেয় করার জন্য একটি মহল অপপ্রচার চালাচ্ছে।

 

মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আকমল হোসেন অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।