যে কারণে বুনো উল্লাসে মাতলেন তপু

শুক্রবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১২:১২:০২ অপরাহ্ণ
0
177
স্পোর্টস ডেস্ক:

পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষদিকে বিশ্বনাথ ঘোষের লম্বা থ্রোতে গোল করে তারকা বনে গেলেন জাতীয় ফুটবল দলের ৪ নম্বর জার্সি পরিহিত তপু বর্মন। তার দুর্দান্ত গোলেই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের ১৬ হাজার দর্শকের সামনে পাকিস্তানকে ১-০ গোলে হারায় বাংলাদেশ।

তবে তপুর এই গোল থেকেও আলোচিত তপুর সেলিব্রেশন। খেলা তখন ৮৫ মিনিটে। গোল দিয়েই তপু বর্মণ জার্সি খুলে ছুটলেন দুরন্ত গতিতে। হঠাৎ তাকে কিছু একটা বললেন ওয়ালি ফয়সাল। মুহূর্তেই কয়েকজন লাইন ধরে দাঁড়ালেন, বিপরীতমুখি হয়ে তপু গুলির ভঙ্গিমা করতেই লুটিয়ে পড়লেন তারা । পাকিস্তানকে হারিয়ে এমন বুনো উল্লাসেই মেতে উঠেছিল বাংলাদেশ দল।

ম্যাচ শেষে উদযাপনের বিষয়ে তপু বর্মণকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমার পরিকল্পনা ছিল এই ম্যাচে গোল পেলে জার্সি খুলে উদযাপন করব। আর গুলি করার পরিকল্পনাটা ওয়ালি ফয়সাল ভাইয়ের। তিনি আমাকে বলেছেন, তুই গুলি কর। আমরা স্পট ডেট হব। আমি গুলি করি আর তারা মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।’

ভুটানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেও গোল পেয়েছিলেন তপু। তবে পাকিস্তানের বিপক্ষে গোলটির মাহাত্ম্য তার কাছে একটু বেশিই। সংবাদ সম্মেলনেও এই ডিফেন্ডারের চোখে-মুখে ফুটে উঠেছিল তৃপ্তির ঝিলিক। তিনি বলেন, ‘সেমিফাইনালের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছি। এই আনন্দ অন্য রকম, তাও আবার গোলটি আমার করা। চিন্তা করতেই কেমন জানি লাগছে।’

গ্রুপ ‘এ’ থেকে ভুটান ও পাকিস্তানকে হারালেও এখনো নিশ্চিত নয় বাংলাদেশের সেমিফাইনাল। শনিবার শেষ ম্যাচে যদি ভুটানকে হারায় পাকিস্তান, আর নেপালের কাছে হেরে যায় বাংলাদেশ, তাহলে তিন দলের পয়েন্ট দাঁড়াবে সমান ৬। সেক্ষেত্রে গোল ব্যবধানই মুখ্য হয়ে যাবে সেমিতে যাওয়ার লড়াইয়ে। সেজন্য নেপালের বিপক্ষে নিশ্চিন্তে থাকার অবকাশ নেই বলেও জানালেন দুই ম্যাচে দুই গোল করা তপু।