প্রচ্ছদ

বিএফইউজের বিদায়ী মহাসচিব শাবান মাহমুদকে ডিইউজের সংবর্ধনা

২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৩:২১

যুগের কন্ঠ ২৪ ডট কম

 

::নিজস্ব প্রতিবেদক::
ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) নির্বাহী কমিটির সভা আজ মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয়। সভার শুরুতে, খন্দকার আতাউল হক, মিজানুর রহমান খান, হিলালী ওয়াদুদ চৌধুরী ও প্রায়ত কামাল লোহানী ও আলতাফ মাহমুদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

সভা শেষে বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের বিদায়ী মহাসচিব ও ভারতের দিল্লিতে বাংলাদেশ হাইকমিশনে নিযুক্ত মিনিস্টার (প্রেস) শাবান মাহমুদকে ফুল ও ক্রেস্ট দিয়ে সংবর্ধিত করা হয়।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ বলেন, মানবকণ্ঠ, নিউ নেশন, খোলা কাগজসহ যেসব পত্রিকায় বেতন-ভাতা অনিয়মিত, অবিলম্বে তা পরিশোধের দাবি জানান। একই সঙ্গে সারা দেশে সাংবাদিকদের দুরবস্থা নিরসনে নবম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়নের জন্য সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।

প্রারম্বিক বক্তব্যে সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু বলেন, গণমাধ্যমে বেতন হ্রাসসহ ছাঁটাই ও বাধ্যতামূলক ছুটি দেওয়ার পাঁয়তারা চলছে। যা প্রচলিত আইনের প্রতি বৃদ্ধাগুলি প্রদর্শনের নামান্তর। এগুলো প্রতিরোধে সাংবাদিক সমাজকে ঐক্যেবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

সভায় বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সহ-সভাপতি এম এ কুদ্দুস, যুগ্ম সম্পাদক খায়রুল আলম, কোষাধ্যক্ষ আশরাফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জিহাদুর রহমান জিহাদ, প্রচার সম্পাদক আছাদুজ্জামান, ক্রীড়া সম্পাদক দুলাল খান, জনকল্যাণ সম্পাদক সোহেলী চৌধুরী, দফতর সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস চৌধুরী, নির্বাহী সদস্য শাহনাজ পারভীন এলিস, জিএম মাসুদ ঢালী, রাজু হামিদ, সলিমুল্লাহ সেলিম,সাকিলা পারভীন, নিউ নেশন ইউনিট প্রধান হেমায়েত হোসেন, করোতোয়া ইউনিট প্রধান এস এম শাহাবুদ্দিন, জনকণ্ঠ ডেপুটি ইউনিট চীফ পলাশ চন্দ্র দাস।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, জীবিকা ধ্বংসের এ ধরনের হীনষড়যন্ত্র মূলত সমাজের অস্থিরতা তৈরির অপকৌশল। শিল্পে ও সমাজে অস্থিরতা তৈরির দায় মালিকেই নিতে হবে। ডিইউজে নেতৃবৃন্দ মনে করেন- বর্তমান পরিস্থিতিতে সাংবাদিকদের চাকরি সুরক্ষাসহ গণমাধ্যম শিল্প রক্ষায় সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করা জরুরি।

অবিলম্বে, সরকারের নেতৃত্বে জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানান ডিইউজে নেতারা।

 

Shares