প্রচ্ছদ

হামিদুলকে হত্যার পেছনে পাঁচ ছিনতাইকারী

২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২:৩৮

যুগের কন্ঠ ২৪ ডট কম
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

ঢাকার কদম ফোয়ারার সামনে ব্যবসায়ী হামিদুল ইসলামকে ছুরি মেরে হত্যার ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তারা একটি ছিনতাই চক্রের সদস্য বলে জানিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মো. সোহেল ওরফে এরাবিয়ান সোহেল, মো. জাহিদ হোসেন, মো. শুক্কুর আলী, মো. শাকিল ওরফে ডুম্বাস ও মো. সোহেল মিয়া।

এসময় তাদের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ১টি চাকু, ১টি মোটরচালিত রিকশা, লুণ্ঠিত মোবাইল ও মানিব্যাগ উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) এ কে এম হাফিজ আক্তার।

তিনি বলেন, ‘হামিদুল ইসলাম গত ২৫ বছর ধরে সেগুনবাগিচা হাইকোর্ট এলাকায় ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্কের ব্যবসা করতেন। স্ত্রী সন্তান নিয়ে তিনি সেগুনবাগিচা এলাকায় থাকতেন। তিনি জাসদের শাহবাগ থানা এলাকার সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। গত ২৩ জানুয়ারি পুরান ঢাকায় অবস্থিত তার ফ্ল্যাটের ভাড়া তুলে বাসায় ফেরার পথে ছিনতাইকারীদের হাতে খুন হন। এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় একটি মামলা রুজু হয়। ডিবি রমনা বিভাগ এই মামলার তদন্ত শুরু করে।’

ডিবির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আরো জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা হত্যাকাণ্ডের সাথে নিজেদের সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করেছে। তারা ঘটনার দিন মোটরচালিত রিকশাযোগে হাইকোর্ট মাজার গেটের বিপরীত পাশে এসে অবস্থান করে। শাকিল মোটরচালিত রিকশা নিয়ে সেখানে অপেক্ষা করতে থাকে। আনুমানিক সাড়ে ৮টার দিকে বাকি ৪ জন হাইকোর্টের ঈদগাহ মাঠের সামনে ফুটপাতের উপরে হামিদুর রহমানের গতিরোধ করে তার নিকটে থাকা ১টি স্যামসাং এ ২১-এস মোবাইল ফোন ও পকেট হতে মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেয়। তারা ভিকটিমের পকেটে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলে ভিকটিম চিৎকার করে। তখন গ্রেপ্তারকৃত সোহেল তার নিকটে থাকা চাকু দিয়ে ভিকটিমের পায়ে ও হাতে আঘাত করে। ভিকটিমকে ফেলে রেখে ছিনতাইকারী দল দ্রুত পালিয়ে যায়। পথচারীরা আহত অবস্থায় হামিদুল ইসলামকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরো বলেন, ‘ঘটনার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আমরা ছিনতাইকারী চক্রটিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।’

এর আগে সোমবার রাজধানীর উত্তর মুগদা ও কামরাঙ্গীরচর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

Shares