প্রচ্ছদ

দিল্লি বিস্ফোরণের তদন্তে মোসাদ

৩১ জানুয়ারি ২০২১, ১১:২৮

যুগের কন্ঠ ২৪ ডট কম
ছবি: সংগৃহীত
::আন্তর্জাতিক ডেস্ক::

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে অবস্থিত ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে বিস্ফোরণের ঘটনার তদন্ত করবে ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ। শনিবার এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে এমনই তথ্য দিয়েছে কান নিউজ। তবে কান নিউজ কোনো সূত্রের নাম উল্লেখ করেনি।

ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে ইরানের হাত থাকতে পারে এই ঘটনার পিছনে। তাই সেই দিকটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ইন্ডিয়া টুডে টিভি জানিয়েছে, এই ঘটনার জড়িত সন্দেহে বেশ কয়েকজন ইরানিয়ানকে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে।

ভারতে এই ঘটনার পরে প্রতিটি দেশে নিজেদের রাষ্ট্রদূতদের ও দূতাবাসের কর্মীদের নিরাপত্তা নিয়ে সতর্কতা জারি করেছে ইজরায়েল।

এদিকে, শুক্রবার দিল্লির ইজরায়েলি দূতাবাসের সামনে বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করে জইশ-উল-হিন্দ নামে একটি সংগঠন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করে জঙ্গি সংগঠন জইশ-উল-হিন্দ। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্তে নেমে টেলিগ্রামে একটি কথোপকথন খুঁজে বের করেছে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা।

দিল্লি পুলিশ জানাচ্ছে, বিস্ফোরণস্থল থেকে মিলেছে একটি ফুলের সাজি বা টব। রাস্তার ওপর ডিভাইডারে তা পোঁতা ছিল। সেই টবেই ছিল বোমা। এছাড়াও উদ্ধার হয়েছে একটি খাম, যার ওপরে ইজরায়েলি দূতাবাসের ঠিকানা লেখা ছিল। সেখান থেকে একটি চিঠি উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেখানে এই বিস্ফোরণকে ট্রেলার বলে অভিহিত করা হয়েছে। চিঠিতে দুই ইরানিয়ান শহিদের নাম উল্লেখ রয়েছে। চিঠিতে উল্লেখ রয়েছে কাশেম সোলেইমানি ও ডঃ মোহসেন ফকরিয়াজাদেহের নাম।

শুক্রবার দিল্লিতে বিস্ফোরণের পর তদন্ত শুরু করেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। টেলিগ্রামে একটি চ্যানেল খোলা হয়। শনিবার সকালে সেই চ্যানেলেই একটি পোস্ট করে জঙ্গি সংগঠন জইশ-উল-হিন্দ। বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করে নেয় সংগঠনটি।

কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই অ্যাকাউন্টটি ডিলিটও করে দেওয়া হয়। ওই জঙ্গি সংগঠনটি ঘটনার দায় নিয়ে জানায়, ভারতের বিরুদ্ধে এভাবেই একটি সিরিজ হামলার সূচনা করা হল। ভারত বিভিন্ন জায়গায় অত্যাচার করছে। এটা তারই বদলা। সূত্র: কলকাতা ২৪*৭।

Shares