শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ

যুগের কন্ঠ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১০ মে, ২০২১
  • ১১
ফাইল ছবি
::যুগের কন্ঠ ডেস্ক::

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে উন্নত দেশ গড়বেন তিনি।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় নাটোরের সিংড়া উপজেলা মিলনায়তনে নিজস্ব অর্থায়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের নিকট ঈদ উপহার ও খাদ্যসামগ্রী প্রদানকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের বর্তমান মাথাপিছু আয় দুই হাজার ৬৯ ডলার। আমাদের দেশের জিডিপির পরিধি ৩৪৮ বিলিয়ন ডলার। এ দেশের সম্পদ লুট করেও পাকিস্তানের অর্থনীতি আমাদের চেয়ে অর্ধেক অবস্থানে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বিভিন্ন রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানেরা এসেছেন এবং দেশের উন্নয়নে মুগ্ধ হয়েছেন। দেশের এ অগ্রযাত্রার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানসহ শতাধিক দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধান। দেশের ধারাবাহিক উন্নয়নের এ অগ্রযাত্রায় ২০৪১ সালে দেশ চলে যাবে উন্নত দেশের কাতারে।

পলক বলেন, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা না হলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নত দেশের কাতারে চলে যেত। জনবান্ধব বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা অর্জনের পরে দেশের উন্নয়ন চিন্তা মাথায় রেখে দেশের জনগণের জন্যে অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসাকে মৌলিক চাহিদা হিসেবে সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। ৫০ বছর পরে জাতিসংঘ টেকসই উন্নয়নের কর্মপরিকল্পনায় বঙ্গবন্ধুর ওই সময়ের ৫টি মৌলিক চাহিদাকে জনগণের অধিকার হিসেবে সারাবিশ্বে বাস্তবায়নের নির্দেশনা প্রদান করেছে।

‌‘দেশের এ উন্নয়ন-অগ্রযাত্রাকে মেনে নিতে পারছে না দেশের স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি। ঘাতক এ শক্তি ধর্মের দোহাই দিয়ে ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিল, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করেছিল এবং দেশের সব আন্দোলন-সংগ্রামে বিরোধিতা করেছিল। এই দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রকারীরা আবার নতুন করে সক্রিয় হয়ে উঠেছে। দেশের উন্নয়ন-অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে এ ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সজাগ থাকতে হবে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকারকে শক্তিশালী করে সংগঠন। সংগঠনের প্রাণ দলের আদর্শ কর্মী। সংগ্রাম, সম্মেলন আর নির্বাচনের মাধ্যমে দল হয় সুসংহত। দলের নেতা-কর্মীরা বিগত সময়ে কখনও ঘরে বসে থাকেনি, আন্দোলনে জীবনের মায়া করেনি। দলের এ কর্মীরাই শেখ হাসিনার উন্নয়ন-অগ্রযাত্রার সহায়ক শক্তি।

‘যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপসহ বিশ্বের উন্নত দেশগুলো করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। কিন্তু শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে আমাদের দেশ করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি মোকাবিলা করছে। জীবন ও জীবিকার মধ্যে ভারসাম্য তৈরি করে পথ চলছি আমরা। দেশের চার কোটি মানুষের কাছে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে এবং ৮৬ লাখ মানুষ ঘরে বসে আড়াই হাজার টাকার অনুদান পেয়েছেন। করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি মোকাবিলা করে জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে এগিয়ে যাবে দেশ।’

পলক বলেন, করোনায় বিশ্বের শতবর্ষের ইতিহাসে যখন পুরো পৃথিবীতে অর্থনীতির স্থবিরতা নেমে এসেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বল্প আয়ের মানুষকে মানবিক সহায়তা প্রদান অব্যাহত রেখেছেন। সেই মানবিক সহায়তা বিতরণে গরিবের হক নষ্ট করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সূত্র: বাসস

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..