মিরপুরে গায়েবি কান্না, উদঘাটন পুলিশের

;
  • প্রকাশিত: ৭ মে ২০২১, ৭:০২ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৫ মাস আগে
No Caption

::নিজস্ব প্রতিবেদক::

রাজধানীর মিরপুর ২নং সেকশ‌নে নির্মানাধীন একটি আবাসিক প্রকল্পে রাতের বেলা প্রায়ই গায়েবি কান্নার শব্দ ভে‌সে আসে। কয়েকদিন চেষ্টা করেও এলাকাবাসী বিষয়টি উদঘাটন করতে পারেননি। পরে স্থানীয় এক ব্যক্তি বাংলাদেশ পুলিশের ফেসবুক পেইজে এই তথ্য জানান।

শুক্রবার বাংলাদেশ জার্নালকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মি‌ডিয়া এন্ড পাব‌লিক রি‌লেশন্স) মো. সো‌হেল রানা।

এআইজি মো. সো‌হেল রানা বলেন, মিরপুর থেকে ম্যাসেজে জানানো হল একটি আবাসিক নির্মানাধীন প্রকল্পে রাতের বেলা প্রায়ই গায়েবি কান্নার শব্দ আসে। কয়েকদিন চেষ্টা করেও কেউ কান্নার উৎস জানতে পারেননি। পরে এক ব্যক্তি পু‌লি‌শের প‌রিচা‌লিত ‘বাংলা‌দেশ পু‌লি‌শ’ ফেসবুক পে‌জে ইনবক্স করেন।

এই প্রেক্ষিতে, মিরপুর থানার ওসির নেতৃত্বে সাদা পোশাকের একটি দল ওই নির্মাণাধীন প্রকল্পে যায়। প্রথম দিন কিছু না পেয়ে দলটি পরপর দুদিন রাতের বেলা ওই এলাকায় যায়।

পরে তারা দেখতে পায়, একটি নির্মাণাধীন হাউজিং কমপ্লেক্সের ভেতরে পরিত্যক্ত একটি বিল্ডিংয়ে এক ব্যক্তি তার স্ত্রী ও শিশু সন্তানদের নিয়ে থাকতেন। প্রতিদিন রাতে তিনি তার সন্তানদের হাত-পা বেঁধে মারপিট করতেন। সেই চিৎকার শোনা যেত দূর থেকে। এছাড়াও স্ত্রীকেও নানা সময় নির্যাতন করতেন। স্ত্রী ও শিশুদের অভিযোগের ভি‌ত্তিতে ওই নির্যাতনকারী ‌ব্যক্তিকে আটক ক‌রে‌ পু‌লিশ।

পুলিশ জানায় ওই ব্যক্তির নাম মো. জাহাঙ্গীর। তিনি দুই শিশু ও স্ত্রী নিয়ে বসবাস করছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি ভোলা জেলার চরফ্যাশনে। ঢাকায় থাকার জায়গা না পেয়ে গোপনেই পরিত্যক্ত এই নির্মাণাধীন ভবনে থাকতেন। জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে একটি মামলা হচ্ছে বলে জানায় পুলিশ।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...