ঢাকা ০৭:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহারের দাবিতে ডুয়েটে সর্বাত্মক কর্ম বিরতি

আরমান চৌধুরী, ডুয়েট প্রতিনিধি
  • আপডেট : ০৮:১০:৫৪ অপরাহ্ন, সোমাবার, ১ জুলাই ২০২৪
  • / 301

প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহারের দাবিতে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বাত্মক কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষকেরা। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে সর্বজনীন পেনশনের ‘প্রত্যয় স্কিমের’ প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহারসহ কয়েকটি দাবিতে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) শিক্ষকদের সর্বাত্মক কর্মবিরতি চলছে। ডুয়েটের শিক্ষকেরা আজ সোমবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা চললেও আজ থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ থাকবে।

অবস্থান কর্মসূচিতে ডুয়েট শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো.মাজহারুল ইসলাম বলেন, প্রত্যয় স্কিমের মাধ্যমে সামাজিক নিরাপত্তার ব্যত্যয় ঘটানো হয়েছে। প্রত্যয় স্কিম জোর করে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। জোর করে কোনো কিছু চাপিয়ে দেওয়া মানে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা। এটি বাস্তবায়িত হলে শিক্ষকেরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। অবস্থান কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো.নজরুল ইসলাম। এ সময় আরও বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ডীন এবং বিভাগীয় প্রধানগণ। গত ১৩ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে প্রত্যয় স্কিমের প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকেই এটিকে বৈষম্যমূলক উল্লেখ করে এর বিরুদ্ধে সরব হন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। কিছু কর্মসূচি পালনের পর ৪ জুন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন শিক্ষকেরা। এরপরও দাবির বিষয়ে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় গত ২৫, ২৬ ও ২৭ জুন তিন দিন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন।

গত বছর সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২৩ প্রণয়ন করা হয়। গত ১৩ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ এক প্রজ্ঞাপন জারি করে। সেখানে বলা হয়, চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে স্বশাসিত, স্বায়ত্তশাসিত ও রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার চাকরিতে যাঁরা নতুন যোগ দেবেন, তাঁরা বিদ্যমান ব্যবস্থার মতো আর অবসরোত্তর পেনশন-সুবিধা পাবেন না। এর পরিবর্তে নতুন যোগ দেওয়া কর্মীদের বাধ্যতামূলক সর্বজনীন পেনশনের আওতাভুক্ত করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহারের দাবিতে ডুয়েটে সর্বাত্মক কর্ম বিরতি

আপডেট : ০৮:১০:৫৪ অপরাহ্ন, সোমাবার, ১ জুলাই ২০২৪

প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহারের দাবিতে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বাত্মক কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষকেরা। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে সর্বজনীন পেনশনের ‘প্রত্যয় স্কিমের’ প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহারসহ কয়েকটি দাবিতে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) শিক্ষকদের সর্বাত্মক কর্মবিরতি চলছে। ডুয়েটের শিক্ষকেরা আজ সোমবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা চললেও আজ থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ থাকবে।

অবস্থান কর্মসূচিতে ডুয়েট শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো.মাজহারুল ইসলাম বলেন, প্রত্যয় স্কিমের মাধ্যমে সামাজিক নিরাপত্তার ব্যত্যয় ঘটানো হয়েছে। প্রত্যয় স্কিম জোর করে চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। জোর করে কোনো কিছু চাপিয়ে দেওয়া মানে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা। এটি বাস্তবায়িত হলে শিক্ষকেরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। অবস্থান কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো.নজরুল ইসলাম। এ সময় আরও বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ডীন এবং বিভাগীয় প্রধানগণ। গত ১৩ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে প্রত্যয় স্কিমের প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকেই এটিকে বৈষম্যমূলক উল্লেখ করে এর বিরুদ্ধে সরব হন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। কিছু কর্মসূচি পালনের পর ৪ জুন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন শিক্ষকেরা। এরপরও দাবির বিষয়ে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় গত ২৫, ২৬ ও ২৭ জুন তিন দিন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করেন।

গত বছর সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২৩ প্রণয়ন করা হয়। গত ১৩ মার্চ অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ এক প্রজ্ঞাপন জারি করে। সেখানে বলা হয়, চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে স্বশাসিত, স্বায়ত্তশাসিত ও রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার চাকরিতে যাঁরা নতুন যোগ দেবেন, তাঁরা বিদ্যমান ব্যবস্থার মতো আর অবসরোত্তর পেনশন-সুবিধা পাবেন না। এর পরিবর্তে নতুন যোগ দেওয়া কর্মীদের বাধ্যতামূলক সর্বজনীন পেনশনের আওতাভুক্ত করা হবে।