মামলা করায় মা-মেয়েকে নির্যাতনের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ৪ অক্টোবর ২০২১, ২:১৭ অপরাহ্ণ | আপডেট: ২ সপ্তাহ আগে
ছবি সংগৃহীত

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে থানায় মামলা করায় মা রোকেয়া বেগম ও তার মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌসকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার দুপুরের দিকে আহত অবস্থায় তাদের রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এর আগে উপজেলার উত্তর কেরোয়া গ্রামে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সহিদ মোবারক ও আলমগীর হোসেন নামে অভিযুক্ত দুইজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফার ছেলে মৃত খোরশেদ আলমের পরিবার ও সহিদ মোবারকের সঙ্গে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। বিরোধীয় সম্পত্তি ইজারা নিয়ে গত বৃহস্পতিবার খোরশেদের স্ত্রী রোকেয়াকে মারধর করে তার দেবর মোবারক। এ ঘটনায় ৪ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী রোকেয়া। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে অভিযুক্তরা।

এর জের ধরে সোমবার সকালে ৭-৮ জন মিলে বিরোধীয় সম্পত্তিতে সুপারি পাড়তে যান তারা। এ সময় রোকেয়া ও তার মেয়ে জান্নাত বাধা দিতে গেলে তাদের বেধম মারধর করা হয়। এতে গুরুতর আহত হয়ে তারা হাসপাতালে ভর্তি হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত জান্নাত বলেন, আমাদের মালিকানাধীন সম্পত্তি তারা দখল করে নিয়ে যেতে চায়। এর আগে আমার মাকে তারা মারধর করে। আমরা থানায় মামলা করি। এখন ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে তারা। আমরা এর বিচার চাই।

এদিকে এ ঘটনা অস্বীকার করে পাল্টা অভিযোগ করেন মোবারকের মা লুৎফুর নেছা। তিনি বলেন, মা ও মেয়ে মিলে আমাকে পিটিয়েছে।

এ ব্যাপারে রায়পুর থানার ওসি আব্দুল জলিল জানান, দু’পক্ষের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ রয়েছে। এর আগে থানায় একটি মামলা হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...