পাটুরিয়া ঘাটের খুলছে না জট, আটকা ৯’শত ট্রাক

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৭ দিন আগে
ছবি সংগৃহীত

ফেরি স্বল্পতা ও ঘাট বেসিনে নাব্যতা সংকটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটে ভয়াবহ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। আটকে পড়েছে প্রায় ৯০০ ট্রাক। আর ট্রাকের এই দীর্ঘ সারি পাটুরিয়া-ঢাকা মহাসড়কের আড়পাড়া পর্যন্ত প্রায় ৮ কিলোমিটার বিস্তৃত হয়ে পড়ে।

গত বৃহস্পতিবার থেকে আজ (বুধবার) পর্যন্ত ঘাট এলাকায় তীব্র যানজট লেগেই আছে। এছাড়া বাংলাবাজার নৌ-রুটে গত সোমবার থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে, এই যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পাওয়ার আরেকটি কারণ এটা। তবে যানজট দেখা দেয়ায় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) কর্তৃপক্ষ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী বাস ও কোচ পারাপার করছে।

এই নৌ-রুটে চলাচলরত ১৮টি ফেরির মধ্যে শাহজালাল ও মাধবীলতাসহ ৪টি ফেরি বিকল হয়ে মেরামতের জন্য পাটুরিয়া ভাসমান কারখানায় পড়ে আছে। ফলে ১৪টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারপার করা হচ্ছে।

গত সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে পাটুরিয়া ঘাটে ফেরির টিকিটের জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন কুষ্টিয়াগামী ট্রাক চালক মোকসেদ আলী। তিনি জানান, সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে পাটুরিয়া ঘাটে আসেন তিনি। কিন্তু যানজটের কারণে আজ সকাল ৯টা পর্যন্ত অপেক্ষায় থেকেও তিনি ফেরির টিকিট পাননি।

ঘাটে কথা হয় ঢাকার গাজীপুর থেকে ছেড়ে আসা ফরিদপুরগামী ট্রাক চালক আলাল উদ্দিনের সঙ্গে। তিনি জানান, মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে পাটুরিয়া ঘাটে আসেন তিনি। আজ সাড়ে ৯টা পর্যন্ত অপেক্ষায় থেকেও তিনি ফেরির টিকিট পাননি।

এবিষয়ে বিআইডব্লিউটিসির আরিচা অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান বলেন, চলাচলরত এই নৌ-রুটের বেশিরভাগ ফেরি দীর্ঘ দিনের পুরানো। আর ফেরিগুলো প্রতিদিনই কম বেশি মেরামত করতে হয়। একারণে ফেরি স্বল্পতা দেখা দিয়েছে। যার ফলে ঘাট এলাকায় প্রতিদিন তীব্র যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

ফেরি স্বল্পতা ও ঘাটের বেসিনে নাব্যতা সংকটে স্বাভাবিকভাবে ফেরি চলাচল ব্যহত হচ্ছে জানিয়ে বিআইডব্লিউটিসির আরিচা অফিসের ডিজিএম জিল্লুর রহমান বলেন, বাংলাবাজার নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় এই ঘাটে যানবাহনের চাপ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। আর যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী বাস ও কোচ পারাপার করায় ঘাট এলাকায় প্রায় ৯০০ পণ্যবাহী ট্রাক আটকা পড়েছে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...