স্কুলছাত্রী প্রেমিকাকে গলাকেটে হত্যা করা সেই প্রেমিকের মৃত্যু

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ১ মাস আগে

ছবি সংগৃহীত

টাঙ্গাইলের কালিহাতীর এলেঙ্গায় স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টাকারী প্রেমিক মনির হোসেনের (১৭) মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) র‌্যাব-১২ টাঙ্গাইল সিপিসি-৩ এর কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার মো. আবদুল্লাহ আল মানুম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মনির মারা যায়। ময়নাতদন্ত শেষে মনিরের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এর আগে বুধবার (২৮ অক্টোবর) সকালে কোচিংয়ে যাওয়ার পথে সুমাইয়াকে উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার শামসুল হক কলেজের সামনের একটি ভবনের নিচতলায় ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করে মনির। এরপর মনির নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করে। ওই স্কুলছাত্রীর পাশেই মনিরের রক্তাক্ত দেহ পড়ে থাকায় বিষয়টি অন্যদিকে মোড় নেয়।

ছায়া তদন্ত করে দিন শেষে টাঙ্গাইলের র‌্যাব সদস্যরা রহস্য উন্মোচন করে। এরপর মনিরকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে ঢামেক হাসপাতালে র‌্যাব হেফাজতে চিকিৎসা দেয়া হয়।

নিহত সুমাইয়া আক্তার উপজেলার পালিমা গ্রামের ফেরদৌসের মেয়ে। সে এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। তারা এলেঙ্গা কলেজ মোড় এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিল। মৃত মনির উপজেলার মশাজান গ্রামের মেহের আলীর ছেলে

এলেঙ্গা পৌরসভার প্যানেল মেয়র সুকুমার ঘোষ বলেন, পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে মনিরের মৃত্যু খবর পেয়েছি। আইনি প্রক্রিয়া শেষে বৃহস্পতিবার বিকেলে মরদেহ মশাজান গ্রামে আনা হবে।

এ বিষয়ে কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মনিরের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। তবে এখনো অফিসিয়ালি আমাকে কোনো তথ্য দেয়া হয়নি।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...