গ্যাসের লাইনে বিস্ফোরণ: সেই ভবনের মালিক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ৩ নভেম্বর ২০২১, ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ৪ সপ্তাহ আগে

গ্রেপ্তার ভবন মালিক।

চট্টগ্রাম নগরীর আকবর শাহ থানাধীন উত্তর কাট্টলী এলাকায় মরিয়ম ভিলা নামের ভবনটি এখন যেন অভিশপ্ত একটি ভবনে পরিণত হয়েছে। গত বছরের এই নভেম্বর মাসেই একই ভবনের ৬ তলার একটি ফ্ল্যাটে বিস্ফোরণে নিহত হয়েছিল তিনজন, দগ্ধ হয়েছিলো আরও ছয়জন। আর সেই একই ভবনের একই ফ্ল্যাটে আবারও বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে গতকাল।

গ্যাস লিকেজ থেকে সৃষ্ট বিস্ফোরণে এবার একই পরিবারের ছয়জন দগ্ধ হয়েছে। পরে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এক বছরের ব্যবধানে একই ভবনে দুদফা বিস্ফোরণের ঘটনায় ভবন মালিক মমতাজ মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার বাংলাদেশ জার্নালকে এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহির হোসেন।

মঙ্গলবার রাতে নগরের উত্তর কাট্টলী এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর আগে ভুক্তভোগী পরিবারের কর্তা জামাল শেখ বাদি হয়ে আকবর শাহ থানায় ভবন মালিকসহ দুজনের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগে মামলা করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, বাসার মধ্যে গ্যাসের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে বলে বারবার মালিককে বলা হয়। কিন্তু মালিক বিষয়টি পাত্তা দেননি। মালিকের অবহেলার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ওসি জহির হোসেন জানান, অভিযান চালিয়ে ভবন মালিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনদিনের রিমান্ড আবেদনসহ আদালতে পাঠানো হচ্ছে। মামলার আরেক আসামি ভবনের তত্ত্বাবধায়ক বখতিয়ারকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।

গত সোমবার (১ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১২টায় উত্তর কাট্টলীর মরিয়ম ভিলার ছয়তলার ফ্ল্যাটে কেউ একজন মশা মারার ব্যাটটি চালু করতেই স্পার্ক থেকে ঘরে জমে থাকা গ্যাস জ্বলে ওঠে দপ করে। মুহূর্তেই ছড়িয়ে যাওয়া আগুনে মারাত্মকভাবে পুড়ে যান ৯ বছরের এক শিশুসহ ওই পরিবারের ছয় সদস্য। দগ্ধ ছয়জনকে রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় মারা গেছেন ওই বাড়ির গৃহকর্ত্রী সাজেদা বেগম (৪৯)।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...