এক ছেলের মৃত্যুদণ্ড, বাবা ও দুই ছেলের যাবজ্জীবন

নড়াইল প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৯ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ সপ্তাহ আগে

ছবি সংগৃহীত

নড়াইলে হত্যা মামলায় এক জনের কারাদণ্ড ও তার বাবা এবং দুই ভাইয়ের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া যাবজ্জীবন দণ্ডিত প্রত্যেককে জরিমানা করা হয়েছে ২০ হাজার টাকা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

রোববার নড়াইল জেলা ও দায়রা জজ মো. মশিয়ার রহমান এ রায় দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নড়াইল আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) এমদাদুল ইসলাম।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম আলমগীর ভূঁইয়া (৪৮)। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত তিনজন হলেন, আলমগীর ভূঁইয়ার বাবা মো. ছায়েন উদ্দিন, দুই ভাই হাবিবুর রহমান ভূঁইয়া ও জঙ্গু ভূঁইয়া। জঙ্গু ভূঁইয়া পলাতক। রায়ের সময় দণ্ডপ্রাপ্ত অন্যরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাদের বাড়ি কালিয়া উপজেলার কালীনগর গ্রামে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, কালীনগর গ্রামের ব্যবসায়ী ফিরোজ ভূঁইয়া ও ছায়েন উদ্দিনের পরিবারের সঙ্গে জমি-জমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধ মীমাংসার জন্য ২০১৪ সালের ১৮ জানুয়ারি দুই পরিবার কালীনগর বাজারে সালিসে বসে। সালিসের পর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে প্রস্রাব করতে নিজের দোকান থেকে বের হন ফিরোজ ভূঁইয়া। যান দোকানের পাশের গলিতে।

সেখানে আলমগীর ভূঁইয়া তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বুকের বাঁ পাশে আঘাত করেন। অন্য আসামিরা তখন ফিরোজ ভূঁইয়াকে ধরে রাখেন। এরপর তারা পালিয়ে যান। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন। পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহত ফিরোজ ভূঁইয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলা করা হয়।

এদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী এস এম ওয়ালিউর রহমান জানিয়েছেন এ রায়ের বিষয়ে তারা উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...