আমাকে ক্ষমা করে দিও, সাব্বির আমাকে বিয়ে করল না

জয়পুরহাট প্রতিনিধি;
  • প্রকাশিত: ৬ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৪০ অপরাহ্ণ | আপডেট: ২ মাস আগে

ছবি সংগৃহীত

জয়পুরহাটে ‘সুইসাইড নোট’ লিখে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে ফাতেমা আক্তার (১৫) নামে দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী।

সোমবার সকালে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বাগজানা ইউনিয়নের ভুঁইডোবা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সোমবার দুপুরে পুলিশ ওই ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এদিকে মেয়েটির ঘর থেকে উদ্ধার হওয়া সুইসাইড নোটে লেখা ছিল, আমাকে ক্ষমা করে দিও। আমি তোমাদের স্বপ্ন পূরণ করতে পারলাম না। সাব্বির আমাকে বিয়ে করল না।

নিহত ছাত্রী ভুঁইডোবা গ্রামের দুলাল হোসেনের মেয়ে। সে রামভদ্রপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব বাংলাদেশ জার্নালকে জানান, পাঁচবিবি উপজেলার ভুঁইডোবা গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে সাব্বিরের (২২) সাথে দীর্ঘ দিন থেকে স্কুলছাত্রী ফাতেমার প্রেমের সর্ম্পক চলে আসছিল। বিয়ের জন্য ওই ছাত্রী সাব্বিরকে চাপ দিয়ে আসলেও সে নানা অজুহাতে সময় ক্ষেপণ করতো। ঘটনার দিন রাতে মেয়েটির শয়ন ঘরে সাব্বির প্রবেশ করে রাত্রিযাপন করলে তার পরিবার বিষয়টি টের পায়। এসময় ছেলেটি কৌশলে পালিয়ে যায়। পরে সকালে উভয় পরিবারের মাঝে বিষয়টি নিয়ে কথা চলাকালে ছেলের পরিবার বিষয়টি অস্বীকার করে। এতে সোমবার সকালে মেয়েটি লোক লজ্জায় নিজ শয়ন ঘরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।

ওসি আরও বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া এ ঘটনার প্ররোচনায় যারা জড়িত তাদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...