ঢাকা ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লায় দুই শিশু হত্যা: একজনের মৃত্যুদণ্ড, অপরজনের যাবজ্জীবন

কুমিল্লা প্রতিনিধি
  • আপডেট : ০৫:২৪:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩
  • / 114
কুমিল্লার মুরাদনগরে দুই শিশুকে হত্যা মামলায় আসামি ইয়াসমিনকে মৃত্যুদণ্ড এবং মাজেদা বেগমকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক রোজিনা খান এ রায় দেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ২১ এপ্রিল দুপুরে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে কুমিল্লার মুরাদনগরের লাজুর এলাকায় শিশুকে হত্যা করে বাবুল মিয়ার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার (২০) ও সেলিম মিয়ার স্ত্রী মাজেদা বেগম (৩৫)।

নিহত শিশু ইয়াছিন আরাফাত (৮) প্রধান আসামি ইয়াসমিনের ভাসুর মো. বিল্লাল হোসেনের ছেলে ও অপর নিহত শিশু মো. জসিম (৭) চাচা শশুর শাহ আলমের ছেলে। এ ঘটনায় নিহত আরাফাতের পিতা মো. বিল্লাল হোসেন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি নুরুল ইসলাম জানান, ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে মামলার চার্জশিট দাখিল করেন। ২২ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিজ্ঞ আদালত এই রায় দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কুমিল্লায় দুই শিশু হত্যা: একজনের মৃত্যুদণ্ড, অপরজনের যাবজ্জীবন

আপডেট : ০৫:২৪:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩
কুমিল্লার মুরাদনগরে দুই শিশুকে হত্যা মামলায় আসামি ইয়াসমিনকে মৃত্যুদণ্ড এবং মাজেদা বেগমকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক রোজিনা খান এ রায় দেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ২১ এপ্রিল দুপুরে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে কুমিল্লার মুরাদনগরের লাজুর এলাকায় শিশুকে হত্যা করে বাবুল মিয়ার স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার (২০) ও সেলিম মিয়ার স্ত্রী মাজেদা বেগম (৩৫)।

নিহত শিশু ইয়াছিন আরাফাত (৮) প্রধান আসামি ইয়াসমিনের ভাসুর মো. বিল্লাল হোসেনের ছেলে ও অপর নিহত শিশু মো. জসিম (৭) চাচা শশুর শাহ আলমের ছেলে। এ ঘটনায় নিহত আরাফাতের পিতা মো. বিল্লাল হোসেন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি নুরুল ইসলাম জানান, ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে মামলার চার্জশিট দাখিল করেন। ২২ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিজ্ঞ আদালত এই রায় দেন।