ঢাকা ০৫:৩০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাড়ে ৪ ঘণ্টা পর ভাঙ্গুড়ায় রেল যোগাযোগ ​সচল

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ০২:০২:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ জুন ২০২১
  • / 164
::পাবনা প্রতিনিধ::

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় ট্রেন লাইনে ক্রেন ধসে যাওয়ায় উত্তর ও দক্ষিনাঞ্চলের মধ্যে রেল চলাচল বন্ধ ছিল। রোববার বেলা ২টার দিকে ভাঙ্গুড়া স্টেশনের অদূরে স্লিপার বদলের সময় এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় ক্রেনটি উদ্ধার কাজ শেষ রেল চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

ভাঙ্গুড়া স্টেশন মাস্টার মাজহারুল হক তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভাঙ্গুড়া স্টেশন মাস্টার মাজহারুল হক তালুকদার জানান, ভাঙ্গুড়া স্টেশনের অদূরে ক্রেন দিয়ে ট্রেন লাইনের পুরনো স্লিপার সরিয়ে নতুন স্লিপার স্থাপনের কাজ চলছিল। এসময় পুরনো স্লিপার একটি মালবাহী ট্রেনে ওঠানো হচ্ছিল। গত কয়েকদিনের বৃষ্টির কারণে রেল লাইনের পাশে কাঁচা অংশের মাটিও নরম ছিল। এ অবস্থায় বেলা ২টার দিকে ক্রেনটির একটি চাকা ধসে ক্রেনটি রেল লাইনের উপর পড়ে যায়। এতে কেউ হতাহত হয়নি। তবে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত রেল চলাচল বন্ধ ছিল। ঘটনার প্রায় সাড়ে চার ঘন্টা পর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ক্রেনটি রেল লাইন থেকে সরানো হয়।

এদিকে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী চিত্রা এক্সপ্রেস পাবনার চাটমোহরে, চিলাহাটি থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস মুলাডুলিতে, লালমনিরহাট থেকে ছেড়ে আসা লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনটি মাঝগ্রাম স্টেশনে আটকা পড়ে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের পরিবহন কর্মকর্তা (ডিটিও) আনোয়ার হোসেন বলেন, রেল লাইন সংস্কার করার সময় বৃষ্টির কারণে মাটি নরম ছিল। মাটি নরম থাকার ফলে ক্রেনের পায়া মাটিতে ডেবে প্রধান লাইনের ওপর উল্টে পড়ে। এতে ঢাকার সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। ঢাকাগামী তিনটি ট্রেনসহ ঢাকা থেকে আসা রাজশাহীগামী ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন আগের স্টেশনে আটকা পড়ে। রিলিফ ট্রেন পৌঁছার পর দুর্ঘটনার কবলে পড়া ক্রেনটি তুললে রেল লাইন সচল হয়।

ভাঙ্গুড়া স্টেশন মাস্টার মাজহারুল হক তালুকদার বলেন, ক্রেন ধসের প্রায় সাড়ে চার ঘন্টা পর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ক্রেন উদ্ধার কাজ শেষ হয়েছে। এখন ট্রেন চলাচলে আর বাধা নেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সাড়ে ৪ ঘণ্টা পর ভাঙ্গুড়ায় রেল যোগাযোগ ​সচল

আপডেট : ০২:০২:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ জুন ২০২১
::পাবনা প্রতিনিধ::

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় ট্রেন লাইনে ক্রেন ধসে যাওয়ায় উত্তর ও দক্ষিনাঞ্চলের মধ্যে রেল চলাচল বন্ধ ছিল। রোববার বেলা ২টার দিকে ভাঙ্গুড়া স্টেশনের অদূরে স্লিপার বদলের সময় এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় ক্রেনটি উদ্ধার কাজ শেষ রেল চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

ভাঙ্গুড়া স্টেশন মাস্টার মাজহারুল হক তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভাঙ্গুড়া স্টেশন মাস্টার মাজহারুল হক তালুকদার জানান, ভাঙ্গুড়া স্টেশনের অদূরে ক্রেন দিয়ে ট্রেন লাইনের পুরনো স্লিপার সরিয়ে নতুন স্লিপার স্থাপনের কাজ চলছিল। এসময় পুরনো স্লিপার একটি মালবাহী ট্রেনে ওঠানো হচ্ছিল। গত কয়েকদিনের বৃষ্টির কারণে রেল লাইনের পাশে কাঁচা অংশের মাটিও নরম ছিল। এ অবস্থায় বেলা ২টার দিকে ক্রেনটির একটি চাকা ধসে ক্রেনটি রেল লাইনের উপর পড়ে যায়। এতে কেউ হতাহত হয়নি। তবে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত রেল চলাচল বন্ধ ছিল। ঘটনার প্রায় সাড়ে চার ঘন্টা পর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ক্রেনটি রেল লাইন থেকে সরানো হয়।

এদিকে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী চিত্রা এক্সপ্রেস পাবনার চাটমোহরে, চিলাহাটি থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস মুলাডুলিতে, লালমনিরহাট থেকে ছেড়ে আসা লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনটি মাঝগ্রাম স্টেশনে আটকা পড়ে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের পরিবহন কর্মকর্তা (ডিটিও) আনোয়ার হোসেন বলেন, রেল লাইন সংস্কার করার সময় বৃষ্টির কারণে মাটি নরম ছিল। মাটি নরম থাকার ফলে ক্রেনের পায়া মাটিতে ডেবে প্রধান লাইনের ওপর উল্টে পড়ে। এতে ঢাকার সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। ঢাকাগামী তিনটি ট্রেনসহ ঢাকা থেকে আসা রাজশাহীগামী ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন আগের স্টেশনে আটকা পড়ে। রিলিফ ট্রেন পৌঁছার পর দুর্ঘটনার কবলে পড়া ক্রেনটি তুললে রেল লাইন সচল হয়।

ভাঙ্গুড়া স্টেশন মাস্টার মাজহারুল হক তালুকদার বলেন, ক্রেন ধসের প্রায় সাড়ে চার ঘন্টা পর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ক্রেন উদ্ধার কাজ শেষ হয়েছে। এখন ট্রেন চলাচলে আর বাধা নেই।