‘মন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখে’ জেলে কাজী ইব্রাহীম

অনলাইন ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১:৫৬ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৩ সপ্তাহ আগে
ছবি সংগৃহীত

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় ইসলামী বক্তা মুফতি কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম দুইদিনের রিমান্ডে রয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উসকানিমূলক বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানায় মঙ্গলবার রাতে ইব্রাহীমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়।

ঢাকা মহানগর ডিবি উত্তরের সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) মুন্সি আব্দুল লোকমান বাদী হয়ে ডিএমপির মোহাম্মদপুর থানায় এ মামলা করেন।

সম্প্রতি ওয়াজ মাহফিল, ইউটিউব, ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে মুফতি কাজী ইব্রাহিম নানান বক্তব্য দিয়ে আলোচিত-সমালোচিত হয়েছেন। সমালোচিত মতবাদের মধ্যে একটি হলো- করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার কারণে নারীর দাড়ি গজাচ্ছে, পুরুষের কণ্ঠ পাল্টে নারীকণ্ঠ হচ্ছে।

এরপর গত সোমবার রাতে রাজধানীর লালমাটিয়ার জাকির হোসেন রোডের বাসা থেকে মুফতি ইব্রাহীমকে আটক করে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) একটি দল। পরে তাকে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এদিকে ধর্মীয় এই বক্তাকে গোয়েন্দা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে এসেছে উদ্ভট ও বিভ্রান্তির কিছু তথ্য। মুফতি কাজী ইব্রাহীম দাবি করেছেন, তিনি স্বপ্ন দেখেছেন, তিনি মন্ত্রী হবেন।

বেসরকারি একটি টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানান ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (উত্তর) যুগ্ম কমিশনার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ।

যুগ্ম কমিশনার হারুন-অর-রশীদ আরও বলেন, কাজী ইব্রাহিম প্রায়ই বিভিন্ন ধরণের বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দিয়ে যাচ্ছিলেন। কোনো জ্ঞান না থাকার কারণে উনি যেখান থেকে যেটা পাচ্ছেন সেটার ওপরই কথা বলছেন।

‘কাজী ইব্রাহীম বলেছেন উনি নাকি স্বপ্নে দেখেছেন তালেবানরা ক্ষমতায় আসবে। করোনা টিকা নিলে ছেলে মেয়ে হয়ে যাবে, মেয়ে ছেলে হয়ে যাবে। এরপর যারাই কোরআন হাদিসের আলোকে কথা না বলে তারাই হয়ে যাবে হিন্দুস্তানি দালাল, তারা হয়ে যাবে র-এর দালাল। বিভিন্ন উদ্ভট, বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করে মানুষকে বিভ্রান্ত করছেন।’

হারুন-অর-রশীদ আরও বলেন, ‘উনি নাকি স্বপ্ন দেখেছেন উনি মন্ত্রী হবেন। উনি স্বপ্ন কীভাবে দেখেন? আসলে এইগুলো আমরা যাচাই-বাছাই করার জন্য উনাকে নিয়ে আসছিলাম। যখন আমরা কথা বললাম, উনি কোনো কথারই সন্তোষজনক জবাব দিতে পারেননি। উনার কথাগুলো এখনো এলোমেলো মনে হচ্ছে।’

ডিবির এই যুগ্ম কমিশনার আরও বলেন, ‘যখন তাকে আমরা লালমাটিয়ার বাসা থেকে আনতে গেলাম তখনো তিনি লাইভে গিয়ে বলছিলেন যে আমরা যারা গিয়েছি আমরা নাকি হিন্দুস্তানি দালাল, আমরা নাকি র-এর এজেন্ট।’

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...