ঢাকা ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রোহিঙ্গা নারীকে বিয়ে করে টেকনাফ থেকে মাদক এনে ব্যবসা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
  • আপডেট : ০৫:৩২:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ মে ২০২২
  • / 63
সাত হাজার পিস ইয়াবা ও ৩৪ বোতল বিদেশি মদসহ ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ময়মনসিংহ বিভাগীয় গোয়েন্দা শাখা। তাদের মধ্যে ৫ জন রোহিঙ্গা।

শুক্রবার দিবাগত রাতে নগরীর চরকালীবাড়ী এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। আজ শনিবার এসব তথ্য জানান্নো হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, রোহিঙ্গা নাগরিক আনোয়ারা আক্তার ওরফে রোজিনা (২৬), রোহিঙ্গা নাগরিক মো. শাহেদ (২২), রোহিঙ্গা নাগরিক নজরুল ইসলাম (২৯), রোহিঙ্গা নাগরিক মো. তৈয়ব (২০), রোহিঙ্গা নাগরিক খালেদা আক্তার (৩৮) এবং ইলিয়াস কাদের বাবুল (৪৩) ও নাজমুল হুদা (২৫) নামের দুই বাংলাদেশি নাগরিক।

ময়মনসিংহ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর বিভাগীয় উপ-পরিচালক শওকত ইসলাম জানান, নেত্রকোনা সদর এলাকার হরিদাসপুর এলাকার ইলিয়াস কাদের বাবুল দেড় বছর আগে রোহিঙ্গা নাগরিক রোজিনাকে বিয়ে করেন। এরপর থেকে তিনি স্ত্রী রোজিনা ও আত্মীয় স্বজনদের মাধ্যমে টেকনাফ থেকে মাদক এনে ব্যবসা শুরু করেন। বিয়ের পর থেকে তিনি ময়মনসিংহ সদরের চরকালীবাড়ী এলাকায় বাসা ভাড়া করে বসবাস করা শুরু করেন।

তিনি আরও জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়ের পরিদর্শক খন্দকার নাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছেন। তাদের ময়মনসিংহের কোতোয়ালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রোহিঙ্গা নারীকে বিয়ে করে টেকনাফ থেকে মাদক এনে ব্যবসা

আপডেট : ০৫:৩২:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ মে ২০২২
সাত হাজার পিস ইয়াবা ও ৩৪ বোতল বিদেশি মদসহ ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ময়মনসিংহ বিভাগীয় গোয়েন্দা শাখা। তাদের মধ্যে ৫ জন রোহিঙ্গা।

শুক্রবার দিবাগত রাতে নগরীর চরকালীবাড়ী এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। আজ শনিবার এসব তথ্য জানান্নো হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, রোহিঙ্গা নাগরিক আনোয়ারা আক্তার ওরফে রোজিনা (২৬), রোহিঙ্গা নাগরিক মো. শাহেদ (২২), রোহিঙ্গা নাগরিক নজরুল ইসলাম (২৯), রোহিঙ্গা নাগরিক মো. তৈয়ব (২০), রোহিঙ্গা নাগরিক খালেদা আক্তার (৩৮) এবং ইলিয়াস কাদের বাবুল (৪৩) ও নাজমুল হুদা (২৫) নামের দুই বাংলাদেশি নাগরিক।

ময়মনসিংহ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর বিভাগীয় উপ-পরিচালক শওকত ইসলাম জানান, নেত্রকোনা সদর এলাকার হরিদাসপুর এলাকার ইলিয়াস কাদের বাবুল দেড় বছর আগে রোহিঙ্গা নাগরিক রোজিনাকে বিয়ে করেন। এরপর থেকে তিনি স্ত্রী রোজিনা ও আত্মীয় স্বজনদের মাধ্যমে টেকনাফ থেকে মাদক এনে ব্যবসা শুরু করেন। বিয়ের পর থেকে তিনি ময়মনসিংহ সদরের চরকালীবাড়ী এলাকায় বাসা ভাড়া করে বসবাস করা শুরু করেন।

তিনি আরও জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়ের পরিদর্শক খন্দকার নাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছেন। তাদের ময়মনসিংহের কোতোয়ালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।