মডেলিং থেকে অভিনয়ে, অল্পেই আলোচনায় সামান্তা

বিনোদন ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ৪ অক্টোবর ২০২১, ২:০৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৩ সপ্তাহ আগে
মডেল ও অভিনেত্রী সামান্তা শিমু

চার বছর আগে এয়ারটেলের বিজ্ঞাপন দিয়ে শোবিজে যাত্রা করা সামান্তা শিমু এখন নাটকে তুমুল ব্যস্ত। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে নাটকে অভিনয় শুরু করেন, মাত্র ৬ মাসেই কাজ করেছেন ২০টিরও বেশি একক নাটকে। তরুণ শিল্পী হিসেবে এ যেন ‘মেঘ না চাইতেই বৃষ্টি’। নাটকগুলোতে তিনি জুটি বেঁধে কাজ করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, তৌসিফ মাহবুব, মিশু সাব্বির, তানভীর, শিপন মিত্রের সঙ্গে।

সম্প্রতি তৌসিফ মাহবুবের সঙ্গে ‘দ্য কুকিং’, আনিসুর রহমান মিলনের সঙ্গে ‘উনপাঁজুরে’ এবং ইমরাউল রাফাতের ‘সাবলেট গুবলেট’ নাটক দিয়ে বেশ প্রশংসিত হন এবং হন আলোচিত। মাত্র অল্প সময়ের অভিনয়ের ক্যারিয়ারেই বেশ ব্যস্ততা পার করছেন সামান্তা। হাতে রয়েছে বেশ কিছু বিজ্ঞাপন ও কয়েকটি একক নাটক।

সামান্তা শিমু বলেন, ‘আমি সত্যিই অনেক ভাগ্যবতী যে অভিনয় শুরুর দিকেই এত বেশি সাপোর্ট পাচ্ছি সবার। কয়েকটা কাজ থেকে অনেক ভালো সাড়া পেয়েছি। এরপর থেকেই বলা যায় অনেক কাজের প্রস্তাব পাচ্ছি। এটার জন্য আলহামদুলিল্লাহ। এত অল্প সময়ে এভাবে এত রেসপন্স পাবো, ভাবোনি কখন। তবে যা পাচ্ছি তাই করছি না, যেগুলো ভালো মনে করছি শুধু সেগুলোই করছি এখন।’

তিনি আরও বলেন, ‘একটা সময় অনেক মডেলিং করেছি, মিউজিক ভিডিও করেছি। কিন্তু এখন শুধু নাটকেই মনোযোগ দিয়েছি। অভিনয়টাকে ভালো করে রপ্ত করার চেষ্টা করছি। নিজেকে একজন অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। এর বাইরে বিজ্ঞাপন তো করা হচ্ছেই।’

নরসিংদীর মেয়ে সামান্তা ’১৭ এর শেষ দিকে মডেলিং দিয়ে শোবিজে পা রাখেন। এরপর এয়ারটেলের বিজ্ঞাপনে অংশ নেন। এখন পর্যন্ত প্রায় ১৫টির মত বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন তিনি এবং তাকে প্রায় ৫০টিরও অধিক মিউজিক ভিডিওতে দেখা গিয়েছে। নরসিংদী শিল্পকলা একাডেমী থেকে নাচের তালিম নিয়েছেন।

মাঝে এক থেকে দেড় বছর কাজ থেকে বিরতিও নিয়েছিলেন। বাবা মারা যাওয়ার পর কিছুটা সময় নিয়েছিলেন, এরপর ২০১৯ এর শুরুর দিকে বিজ্ঞাপন ও মিউজিক ভিডিও দিয়ে আবারও কাজে ফেরেন। এখন নিজেকে ব্যস্ত রেখেছেন শুধু অভিনয়ে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...