ঢাকা ০৬:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পুরো বিষয়টাই আমার কাছে স্বপ্নের মত লেগেছে: কেজিএফ তারকা শ্রীনিধি

  • বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:০৭:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২২
  • ২ বার পড়া হয়েছে

কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতিক্ষীত সিনেমা ‘কেজিএফ’ এর দ্বিতীয় কিস্তি। মুক্তির পর যেন ভারতবর্ষে রীতিমত ঝড় তুলেছে সিনেমাটি। ইতিমধ্যেই বক্সঅফিস রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ডের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে সিনেমাটি। এই সিনেমাতে ইয়াশের বিপরীতে অভিনয় করেছেন কন্নড়ের ‘মিস সুপারন্যাশনাল’ শ্রীনিধি শেঠি, তাকে দুই কিস্তিতেই দেখা গিয়েছে। তবে প্রথম কিস্তিতে তার স্ক্রিনটাইম কম হলেও দ্বিতীয় কিস্তিতে পুরো সিনেমা জুড়েই ছিলেন তিনি।

তার ইনোসেন্ট লুক, সাবলীল অভিনয় সবকিছুই দর্শকমহলে প্রশংসা কুড়াচ্ছে বেশ। এমন সাড়ায় অভিনেত্রী নিজেও আপ্লুত। নিজের ইন্সটাগ্রামের স্টোরিতে এমন কথা-ই জানান দিচ্ছেন এ কেজিএফ তারকা।

২০১৬ সালে শ্রীনিধি সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হন এবং ‘মিস সুপারন্যাশনাল’ খেতাব জিতেন। এই প্রতিযোগিতা থেকে বের হবার পরপরই ‘কেজিএফ’ সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব পান তিনি। এরপর তিনি অডিশন দেন এবং লুক টেস্ট দেন পরিচালক প্রশান্ত নীলের কাছে। লুক টেস্ট দেওয়ার পরও যেন তা বিশ্বাস করতে পারছিলেন না শ্রীনিধি।

ছোটবেলা থেকেই ভীষণ সিনেমাপ্রেমী ছিলেন শ্রীনিধি। তার ইচ্ছে ছিলো সিনেমায় কাজ করার কিন্তু এত দ্রুত যে প্রস্তাব পাবেন, সেটা কখনও কল্পনাও করেন নি।

এক সাক্ষাৎকারে শ্রীনিধি জানান, আমার স্বপ্ন ছিল সিনেমা করার কিন্তু সুন্দরী প্রতিযগিতা থেকে বের হবার পরপরই কেজিএফ সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব পাই। এত দ্রুত সবকিছু হয়ে যাবে এটা যেন বিশ্বাস-ই হচ্ছিলো না আমার। আমি সত্যি অনেক ভাগ্যবতী যে, ক্যারিয়ারের শুরুর দিকেই সিনেমায় কাজ করার সুযোগ পাবো, ভাবিনি। পুরো বিষয়টাই আমার কাছে স্বপ্নের মত লেগেছে।

পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি প্রথমে বিশ্বাস-ই করতে পারছিলাম না যে, আমি সুযোগ পেয়েছি। এরপর পরিচালকের সঙ্গে মিটিং করি এবং গল্প এবং আমার চরিত্র সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারি। তখন এটার কোন পার্ট বা চ্যাপ্টার ছিলো না। আমি এই চরিত্রটি আমার জন্য উপযুক্ত কিনা বা ঠিকভাবে উপস্থাপন করতে পারবো কিনা সেসব নিয়ে নিশ্চিত ছিলাম না!

 

শ্রীনিধিকে ‘কেজিএফ’-এ ইয়াশের প্রেমিকা রিনা দেশাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। সুন্দরী প্রতিযোগিতা থেকে বের হয়েই এই সিনেমার সঙ্গে যুক্ত হন তিনি। দীর্ঘ ৬ বছর ধরে এই সিনেমার সঙ্গেই ছিলেন তিনি।

শ্রীনিধিকে পরবর্তীতে দেখা যাবে কোবরা সিনেমায়। অজয় ​​জ্ঞানমুথু পরিচালিত এই সিনেমায় তার বিপরীতে রয়েছেন তামিল সুপারস্টার বিক্রম। আসছে মে মাসে ছবিটি মুক্তি পেতে পারে।

তার ভাষ্য, “আমি ‘কেজিএফ’ মুক্তির অপেক্ষায় ছিলাম। এটি দুই অংশে মুক্তি পেয়েছে। এরমধ্যে ‘কোবরা’ টিমের কাছ থেকে ফোন পেলাম। যখন গল্পটি শুনেছিলাম তখন আমি ধারণাটি পছন্দ করেছি।”

উল্লেখ্য, বেঙ্গালুরুর জৈন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বৈদ্যুতিক প্রকৌশলে স্নাতক সম্পন্ন করার পর, শ্রীনিধি শেঠি মডেলিং দিয়ে তার ক্যারিয়ার শুরু করেন এবং ২০১৬ সালে সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ‘মিস সুপারন্যাশনাল’ খেতাব জিতেন।

ট্যাগস :

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

জনপ্রিয় সংবাদ

পুরো বিষয়টাই আমার কাছে স্বপ্নের মত লেগেছে: কেজিএফ তারকা শ্রীনিধি

আপডেট সময় : ০৭:০৭:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২২

কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতিক্ষীত সিনেমা ‘কেজিএফ’ এর দ্বিতীয় কিস্তি। মুক্তির পর যেন ভারতবর্ষে রীতিমত ঝড় তুলেছে সিনেমাটি। ইতিমধ্যেই বক্সঅফিস রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ডের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে সিনেমাটি। এই সিনেমাতে ইয়াশের বিপরীতে অভিনয় করেছেন কন্নড়ের ‘মিস সুপারন্যাশনাল’ শ্রীনিধি শেঠি, তাকে দুই কিস্তিতেই দেখা গিয়েছে। তবে প্রথম কিস্তিতে তার স্ক্রিনটাইম কম হলেও দ্বিতীয় কিস্তিতে পুরো সিনেমা জুড়েই ছিলেন তিনি।

তার ইনোসেন্ট লুক, সাবলীল অভিনয় সবকিছুই দর্শকমহলে প্রশংসা কুড়াচ্ছে বেশ। এমন সাড়ায় অভিনেত্রী নিজেও আপ্লুত। নিজের ইন্সটাগ্রামের স্টোরিতে এমন কথা-ই জানান দিচ্ছেন এ কেজিএফ তারকা।

২০১৬ সালে শ্রীনিধি সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হন এবং ‘মিস সুপারন্যাশনাল’ খেতাব জিতেন। এই প্রতিযোগিতা থেকে বের হবার পরপরই ‘কেজিএফ’ সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব পান তিনি। এরপর তিনি অডিশন দেন এবং লুক টেস্ট দেন পরিচালক প্রশান্ত নীলের কাছে। লুক টেস্ট দেওয়ার পরও যেন তা বিশ্বাস করতে পারছিলেন না শ্রীনিধি।

ছোটবেলা থেকেই ভীষণ সিনেমাপ্রেমী ছিলেন শ্রীনিধি। তার ইচ্ছে ছিলো সিনেমায় কাজ করার কিন্তু এত দ্রুত যে প্রস্তাব পাবেন, সেটা কখনও কল্পনাও করেন নি।

এক সাক্ষাৎকারে শ্রীনিধি জানান, আমার স্বপ্ন ছিল সিনেমা করার কিন্তু সুন্দরী প্রতিযগিতা থেকে বের হবার পরপরই কেজিএফ সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব পাই। এত দ্রুত সবকিছু হয়ে যাবে এটা যেন বিশ্বাস-ই হচ্ছিলো না আমার। আমি সত্যি অনেক ভাগ্যবতী যে, ক্যারিয়ারের শুরুর দিকেই সিনেমায় কাজ করার সুযোগ পাবো, ভাবিনি। পুরো বিষয়টাই আমার কাছে স্বপ্নের মত লেগেছে।

পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি প্রথমে বিশ্বাস-ই করতে পারছিলাম না যে, আমি সুযোগ পেয়েছি। এরপর পরিচালকের সঙ্গে মিটিং করি এবং গল্প এবং আমার চরিত্র সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারি। তখন এটার কোন পার্ট বা চ্যাপ্টার ছিলো না। আমি এই চরিত্রটি আমার জন্য উপযুক্ত কিনা বা ঠিকভাবে উপস্থাপন করতে পারবো কিনা সেসব নিয়ে নিশ্চিত ছিলাম না!

 

শ্রীনিধিকে ‘কেজিএফ’-এ ইয়াশের প্রেমিকা রিনা দেশাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। সুন্দরী প্রতিযোগিতা থেকে বের হয়েই এই সিনেমার সঙ্গে যুক্ত হন তিনি। দীর্ঘ ৬ বছর ধরে এই সিনেমার সঙ্গেই ছিলেন তিনি।

শ্রীনিধিকে পরবর্তীতে দেখা যাবে কোবরা সিনেমায়। অজয় ​​জ্ঞানমুথু পরিচালিত এই সিনেমায় তার বিপরীতে রয়েছেন তামিল সুপারস্টার বিক্রম। আসছে মে মাসে ছবিটি মুক্তি পেতে পারে।

তার ভাষ্য, “আমি ‘কেজিএফ’ মুক্তির অপেক্ষায় ছিলাম। এটি দুই অংশে মুক্তি পেয়েছে। এরমধ্যে ‘কোবরা’ টিমের কাছ থেকে ফোন পেলাম। যখন গল্পটি শুনেছিলাম তখন আমি ধারণাটি পছন্দ করেছি।”

উল্লেখ্য, বেঙ্গালুরুর জৈন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বৈদ্যুতিক প্রকৌশলে স্নাতক সম্পন্ন করার পর, শ্রীনিধি শেঠি মডেলিং দিয়ে তার ক্যারিয়ার শুরু করেন এবং ২০১৬ সালে সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ‘মিস সুপারন্যাশনাল’ খেতাব জিতেন।