সিনেমা পরিচালনায় আগ্রহ ববিতা’র

বিনোদন ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১:৫২ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৪ সপ্তাহ আগে
উপমহাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতসম্পন্ন নায়িকা ববিতা

উপমহাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতসম্পন্ন নায়িকা ববিতা শত শত সিনেমাতে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করে নিয়েছেন। তিনিই বাংলাদেশের একমাত্র নায়িকা যিনি অস্কারজয়ী চলচ্চিত্র পরিচালক সত্যজিৎ রায়ের সিনেমায় অভিনয় করেছেন। ববিতা শুধু সিনেমাতে অভিনয়ই যে করেছেন এমনটি নয়, নানান সামাজিক কর্মকাণ্ডের সাথেও নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন নায়িকা’বেলার শুরু থেকে আজ অবধি।

‘ফুলশয্যা’,‘পোকা মাকড়ের ঘর বসতি’,‘ আগমন’,‘ লটারী’,‘লেডি স্মাগলার’, ‘দেশী রংবাজ’ সিনেমা প্রযোজনাও করেছেন তিনি। সিনেমা পরিচালনার আগ্রহও ছিলো ববিতা’র। সেই আগ্রহ এখনো রয়ে গেছে বলে জানান তিনি।

মুঠোফোনে এই প্রসঙ্গে কথা বলা নিয়ে ববিতা বলেন,‘একটা সময় সত্যিই ভীষণ ইচ্ছে ছিলো যেন জীবনে অন্তত: একটি সিনেমা হলেও পরিচালনা করবো। সেই ইচ্ছেটা যে এখন আর নেই, এমনটি নয়। তবে এটা আমি অবশ্যই স্বীকার করি যে সিনেমা পরিচালনা করা অনেক কঠিন একটি কাজ। যে কারণে চাইলেই সিনেমা পরিচালনা করা যায়না। বিষয়টি এমন নয় যে আমি সিনেমা পরিচালনা করবো, সে ক্ষেত্রে আমাকে বেশ কয়েকজন সহযোগিতা করবে-আর পরিচালক হিসেবে আমার নাম যাবে। এমনটি চাইলে আমি অনেক আগেই পরিচালকের খাতায় নাম লিখাতে পারতাম। কিন্তু আমার কাছে মনে হয়েছে পরিচালনা বিষয়ে বিষদ জানতে হবে, বুঝতে হবে, শিখতে হবে। তারপর সিনেমা পরিচালনায় আসতে হবে। এখনো সিনেমা পরিচালনার আগ্রহটা আছে, দেখা যাক ভবিষ্যতে কী হয়।’

এদিকে বেশ কয়েকবছর হলো ববিতা’কে আর নতুন কোন সিনেমায় দেখা যাচ্ছেনা। অনেক পরিচালকের কাছ থেকে তিনি নতুন নতুন সিনেমায় কাজ করার প্রস্তাব পেয়েছেন। কিন্তু গল্প এবং সর্বোপরি চরিত্র পছন্দ হয়নি বলে তাকে নতুন সিনেমায় দেখা যায়নি। সর্বশেষ তাকে নারগিস আক্তারের ‘পুত্র এখন পয়সাওয়ালা’ সিনেমায় অভিনয়ে দেখা গেছে।

এদিকে গত ২১ মে ছিলো বিশ্ববরেণ্য চলচ্চিত্র নির্মাতা সত্যজিৎ রায়ের ১০০’তম জন্মদিন। তার জন্মদিনে তার প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা জানিয়ে গেলো ২৬ আগস্ট প্রকাশিত হলো ‘অপরাজিত সত্যজিৎ’। এটি প্রকাশ করেছে ভারতের কলকাতা’র কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ের জার্নালিজম অ্যান্ড মাস কমিউনিকেশন সেন্টার।

সত্যজিৎ রায়ের ‘পথের পাঁচালী’ মুক্তি পেয়েছিলো ১৯৫৫ সালের ২৬ আগস্ট। তাই সত্যজিৎ রায়ের জন্মের ১০০ বছর পূর্তিতে বইটি প্রকাশ করা হলো প্রথম সিনেমার মুক্তির দিনটিতে। পৃথিবীর আটটি দেশের ৫৫’জন বিশিষ্ট লেখক এই বইটিতে লিখেছেন। বাংলাদেশ থেকে একমাত্র নন্দিত নায়িকা ববিতাই এই বইটিতে লেখার সুযোগ পেয়েছেন শুধুমাত্র সত্যজিৎ রায়ের ‘অশনি সংকেত’ সিনেমায় অভিনয়ের সুবাদে। এমন একটি বইয়ের অংশ হতে পেরে এবং বইটিতে সত্যজিৎ’কে নিয়ে কিছু লিখতে পেরে ভীষণ গর্বিত ববিতা।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...