দেশে মুখে খাওয়া করোনার ওষুধের অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক;
  • প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০২১, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ৩ সপ্তাহ আগে

ছবি সংগৃহীত

দেশে করোনা প্রতিরোধে মলনুপিরাভির অ্যান্টিভাইরাল ট্যাবলেটের জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আলতাফ হোসেন ।

তিনি জানান, এখন থেকে দেশেও ওষুধটির ব্যবহার এবং উৎপাদন করা যাবে। কয়েকটি প্রতিষ্ঠান মলনুপিরাভিরের জরুরি ব্যবহারের অনুমোদনের জন্য আবেদন করেছিল। অধিদপ্তর প্রাথমিকভাবে অনুমোদন দিয়েছে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস ওষুধটি উৎপাদনের অনুমতি পেয়েছে। এছাড়া স্কয়ার, রেনেটা, এসকেএফসহ আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠান অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।

জানা গেছে, এ পর্যন্ত তিনটি মেডিক্যাল ট্রায়াল পার করেছে মলনুপিরাভির। প্রতিটি ট্রায়ালেই রোগীদের শারীরিক অবস্থার লক্ষণীয় উন্নতি দেখা গেছে।

সম্প্রতি যুক্তরাজ্য সরকার এ ওষুধের অনুমোদন দেয়। যুক্তরাজ্যে অনুমোদনের ৪ দিন পর দেশেও ওষুধটির উৎপাদন ও ব্যবহারের বিষয়ে উদ্যোগ নেয়া হলো।

জানা যায়, মার্কিন ওষুধ কোম্পানি মার্ক, শার্প অ্যান্ড ডোহম (এমএসডি) এবং রিজব্যাক বায়োথেরাপটিকসের মলনুপিরাভির করোনা চিকিৎসায় প্রথম অ্যান্টিভাইরাল ট্যাবলেট, যা ইনজেকশনের মাধ্যমে পুশ না করে ওষুধ হিসেবে খাওয়া যাবে। এই ওষুধটি করোনাভাইরাসের বংশবিস্তার অকার্যকর করতে সক্ষম বলে দাবি করেছে এ কোম্পানি। পাশাপাশি এ ওষুধ প্রয়োগের ফলে করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু ও হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকিও ৫০ শতাংশ কমানোর সক্ষমতা এ ওষুধের রয়েছে বলে জানান ওই কোম্পানির কর্মকর্তারা।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...