পাকিস্তানের জয় উদযাপন, কাশ্মিরি শিক্ষার্থীসহ গ্রেপ্তার ৭

অনলাইন ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:২৩ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ১ মাস আগে

জম্মু-কাশ্মিরিরের এ তিন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হতে পারে। ছবি: এনডিটিভির

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ চলাকালে ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচকে কেন্দ্র করে ভারত-শাসিত জন্মু-কাশ্মিরের তিন শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। বুধবার উত্তর প্রদেশ রাজ্য থেকে তাদের আটক করে পুলিশ। এ ছাড়া রাজ্যটিতে আরও চারজনকে একই অভিযোগে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এনডিটিভির খবরে বলা হয়, এ শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দেশের মধ্যে (ভারত ও পাকিস্তান) ম্যাচ চলাকালে পাকিস্তানের বিজয় উদযাপন করেছিলেন তারা।

উত্তর প্রদেশের মূখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের অফিস থেকে বৃহস্পতিবার সকালে এক টুইটে জানানো হয়, জম্মু-কাশ্মিরের ওই তিন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হবে।

এ তিনজনের সবাই আগ্রার রাজা বলবন্ত সিং কলেজের শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে আরশিদ ইউসুফ ও এনায়েল আলতাফ শেখ ওই কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী; কেবল শওকত আহমেদ গানাই চতুর্থ বর্ষে পড়ছেন।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর অফিস থেকে জানানো হয়েছে, ধর্মের ভিত্তিতে বিভিন্ন গোষ্ঠির মধ্যে বিভাজন বাড়ানোর অভিযোগও তাদের বিরুদ্ধে আনা হবে; থাকবে সাইবার-সন্ত্রাসবাদের অভিযোগও। তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হতে পারে।

গত সোমবার আগ্রার ওই কলেজটি এ তিন শিক্ষার্থীকে বরখাস্ত করেছে। তারা বলছে, ভারত-পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি ম্যাচের পর পাকিস্তানের পক্ষ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস দিয়ে তারা শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন।

এ তিন শিক্ষার্থী ছাড়াও উত্তর প্রদেশে আরও চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্যে তিনজনকে ব্যারেলি ও একজন লখনউ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আগ্রা শহরের পুলিশ সুপার ভিকাশ কুমার বার্তাসংস্থা এএনআইকে বলেন, ‘এ ঘটনাটি সবার সামনে আসে একটি ম্যাচের পর, যে ম্যাচটি সম্পর্কে দেশবিরোধী বক্তব্য দেয়া হয়েছে।’ তিনি জানান, ‘আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি; এফআইআর হয়েছে। প্রমান পেয়ে তাদেরকে আটক করা হয়েছে।’

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...