মনিপুরে অতর্কিত হামলায় স্ত্রী-পুত্রসহ ভারতীয় কর্নেল নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ১৩ নভেম্বর ২০২১, ১১:১৫ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ২ সপ্তাহ আগে

সতর্ক অবস্থায় ভারতীয় বাহিনী। ফাইল ছবি

ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক কর্নেল, তার স্ত্রী ও আট বছরের পুত্র এবং আরও চার সেনা সদস্য দেশটির মনিপুর রাজ্যে এক অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছেন। এটি সাম্প্রতিক সময়ে ওই অঞ্চলে সবচেয়ে ভয়াবহ হামলা।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, শনিবার সকাল ১০টার দিকে মিয়ানমার সীমান্তের কাছাকাছি মনিপুরের চুরাচন্দ্রপুর জেলায় ভয়াবহ এ হামলার ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানিয়েছে, আসাম রায়ফেলের একটি বহরে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের একটি গ্রুপ অতর্কিত হামলা চালায়। যে স্থানটিতে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে, সেটি বেশ দূরবর্তী। গ্রামটি মনিপুর রাজ্যের রাজধানী ইস্ফল থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার দূরে।

নিহত কর্নেল বিপ্লব ত্রিপাঠি ৪৬ আসাম রায়ফেলের কমান্ডিং অফিসার। তিনি অন্য একটি ক্যাম্পে গিয়ে সেখান থেকে ফেরার পথে হামলার শিকার হন।

ধারণা করা হচ্ছে, মনিপুরভিত্তিক সন্ত্রাসী গ্রুপ পিপলস লিবারেশন আর্মি বা পিএলএ এ হামলার সঙ্গে যুক্ত। তবে সশস্ত্র সংগঠনটি এ হামলার দায় স্বীকার করেনি। প্রথমবারের মতো এ ধরনের হামলায় বেসামরিক মানুষ মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো।

মনিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বিরেন সিং কর্নেল ও তার পরিবারের সদস্যদের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যহত আছে।

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্য মনিপুরে প্রতিবেশি অন্য রাজ্যগুলোর মতো বেশ কয়েকটি সশস্ত্র সংগঠন সক্রিয় আছে। কিছু সংগঠন বহু বছর ধরে অধিকতর স্বায়ত্বশাসন বা স্বাধীনতার জন্য সশস্ত্র আন্দোলন করছে।

ভারতের গণমাধ্যমটি জানায়, এ কারণে চীন, মিয়ানমার, বাংলাদেশ ও ভূটান সীমান্তবর্তী অঞ্চলগুলোতে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। এর আগে ২০১৫ সালে এক সন্ত্রাসী হামলায় মনিপুরে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...