ঢাকা ০৩:৩৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কাবুলে খুলেছে ব্যাংক, ভিড়-বিশৃঙ্খলা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ১১:২৪:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২১
  • / 118
এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকার পর অবশেষে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে কয়েকটি ব্যাংক খুলেছে। বুধবার এসব ব্যাংক খুলে দেয়ার পর শত শত গ্রাহক একসঙ্গে হাজির হলে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত আশরাফ গানি সরকারকে হটিয়ে গত ১৫ আগস্ট তালেবান কাবুলের ক্ষমতাগ্রহণের পর শহরটির প্রায় সব আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়। এতে সাধারণ লোকজন চরম বিপাকে পড়েন।

তালেবানরা কাবুলে প্রবেশের পর হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারে – এমন শঙ্কা থেকেই ব্যাংক বন্ধ রাখা হয়েছিল। ইতোমধ্যে আফগানিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ৭০০ কোটি ডলার জব্দ করেছে নিউ ইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ। ওই অর্থ সাবেক আশরাফ গানি সরকারের আমলে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকটিতে জমা রেখা হয়েছিল।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়, আফগানিস্তানের জন্য বরাদ্দ ৪৬ কোটি ডলার তহবিলও কেটে নিয়েছে আইএমএফ। এ প্রেক্ষাপটে লাখ লাখ আফগান এটিএম বুথের দিকে ছুটছেন নগদ অর্থের জন্য। কিন্তু সেখানেও রয়েছে তারল্য সংকট।

অভিযোগ আছে, ব্যাংক হিসেবে অর্থ থাকলেও অনেকে তা তুলতে পারছেন না। এভাবে তারল্য সংকটের কারণে ভোগান্তিতে পড়েছেন লাখো আফগান।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কাবুলে খুলেছে ব্যাংক, ভিড়-বিশৃঙ্খলা

আপডেট : ১১:২৪:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২১
এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকার পর অবশেষে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে কয়েকটি ব্যাংক খুলেছে। বুধবার এসব ব্যাংক খুলে দেয়ার পর শত শত গ্রাহক একসঙ্গে হাজির হলে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত আশরাফ গানি সরকারকে হটিয়ে গত ১৫ আগস্ট তালেবান কাবুলের ক্ষমতাগ্রহণের পর শহরটির প্রায় সব আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়। এতে সাধারণ লোকজন চরম বিপাকে পড়েন।

তালেবানরা কাবুলে প্রবেশের পর হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারে – এমন শঙ্কা থেকেই ব্যাংক বন্ধ রাখা হয়েছিল। ইতোমধ্যে আফগানিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ৭০০ কোটি ডলার জব্দ করেছে নিউ ইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ। ওই অর্থ সাবেক আশরাফ গানি সরকারের আমলে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকটিতে জমা রেখা হয়েছিল।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়, আফগানিস্তানের জন্য বরাদ্দ ৪৬ কোটি ডলার তহবিলও কেটে নিয়েছে আইএমএফ। এ প্রেক্ষাপটে লাখ লাখ আফগান এটিএম বুথের দিকে ছুটছেন নগদ অর্থের জন্য। কিন্তু সেখানেও রয়েছে তারল্য সংকট।

অভিযোগ আছে, ব্যাংক হিসেবে অর্থ থাকলেও অনেকে তা তুলতে পারছেন না। এভাবে তারল্য সংকটের কারণে ভোগান্তিতে পড়েছেন লাখো আফগান।