ঢাকা ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফিলিস্তিন ইস্যুতে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো চুপ কেন: প্রধানমন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ০২:১০:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ জুন ২০২১
  • / 186
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

ফিলিস্তিনের জেরুজালেমে পবিত্র আল আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে সম্প্রতি ইসরায়েল যে বর্বর হামলা চালিয়েছে এই ঘটনায় নিন্দা ও শোক জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এই হামলার ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর চুপ কেন?।

বুধবার বিকালে জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনের শুরুতে শোক প্রস্তাবের ওপর বক্তব্য দিতে গিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ফিলিস্তিনের এই ছোট্ট শিশুরাও অত্যাচারিত। তারা মা-হারা, বাবাহারা। এটা সত্যি খুবই দুঃখজনক। অনেকেই মানবতার এতো কথা বলে। কিন্তু তারাসহ অনেকেই চুপ থাকে। আন্তর্জাতিক বহু সংস্থা চুপ থাকে। তারা এখন কথা বলে না কেন। এটা আমরা বড় প্রশ্ন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ফিলিস্তিনিদের পাশে সব সময়ই আছি। আমাদের পক্ষ থেকে তাদের প্রতি সর্বাত্মক সহযোগিতা অতীতেও ছিল, এখনো আছে। সামনেও অবশ্যই করে যাবো। ইসরায়েলের ঘৃণ্য এই আক্রমণের নিন্দা জানাই।

সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু, সংসদ সদস্য আসলামুল হকসহ বিশিষ্টজনদের মৃত্যুতে সংসদে শোক প্রস্তাব আনেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এর ওপর সমাপনী বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী।

সম্প্রতি ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি হামলায় নিহতদের প্রতি শোক জানায় সংসদ। আলোচনায় অংশ নিয়ে সংসদ নেতা বলেন, প্যালেস্টাইনে যে ঘটনা ঘটেছে সে ঘটনা সত্যিই অমানবিক। সেখানে ছোট শিশুদের কান্না এবং তাদের সেই অসহায়ত্ব, মাতৃপিতৃহারা হয়ে ঘুরে বেড়ানো, এটা সহ্য করা যায় না। ইসরায়েল একের পর এক হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে। এর আগেও তারা এই কাজ করেছে। এর প্রতি তীব্র নিন্দা জানাই। এই হামলায় যারা মারা গেছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ফিলিস্তিন ইস্যুতে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো চুপ কেন: প্রধানমন্ত্রী

আপডেট : ০২:১০:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ জুন ২০২১
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

ফিলিস্তিনের জেরুজালেমে পবিত্র আল আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে সম্প্রতি ইসরায়েল যে বর্বর হামলা চালিয়েছে এই ঘটনায় নিন্দা ও শোক জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এই হামলার ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর চুপ কেন?।

বুধবার বিকালে জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনের শুরুতে শোক প্রস্তাবের ওপর বক্তব্য দিতে গিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ফিলিস্তিনের এই ছোট্ট শিশুরাও অত্যাচারিত। তারা মা-হারা, বাবাহারা। এটা সত্যি খুবই দুঃখজনক। অনেকেই মানবতার এতো কথা বলে। কিন্তু তারাসহ অনেকেই চুপ থাকে। আন্তর্জাতিক বহু সংস্থা চুপ থাকে। তারা এখন কথা বলে না কেন। এটা আমরা বড় প্রশ্ন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ফিলিস্তিনিদের পাশে সব সময়ই আছি। আমাদের পক্ষ থেকে তাদের প্রতি সর্বাত্মক সহযোগিতা অতীতেও ছিল, এখনো আছে। সামনেও অবশ্যই করে যাবো। ইসরায়েলের ঘৃণ্য এই আক্রমণের নিন্দা জানাই।

সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরু, সংসদ সদস্য আসলামুল হকসহ বিশিষ্টজনদের মৃত্যুতে সংসদে শোক প্রস্তাব আনেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এর ওপর সমাপনী বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী।

সম্প্রতি ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি হামলায় নিহতদের প্রতি শোক জানায় সংসদ। আলোচনায় অংশ নিয়ে সংসদ নেতা বলেন, প্যালেস্টাইনে যে ঘটনা ঘটেছে সে ঘটনা সত্যিই অমানবিক। সেখানে ছোট শিশুদের কান্না এবং তাদের সেই অসহায়ত্ব, মাতৃপিতৃহারা হয়ে ঘুরে বেড়ানো, এটা সহ্য করা যায় না। ইসরায়েল একের পর এক হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে। এর আগেও তারা এই কাজ করেছে। এর প্রতি তীব্র নিন্দা জানাই। এই হামলায় যারা মারা গেছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করি।