ঢাকা ০১:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অবৈধ গ্যাস-বিদ্যুৎ সংযোগ থেকে আগুনের সূত্রপাত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ১১:৪২:১২ পূর্বাহ্ন, সোমাবার, ৭ জুন ২০২১
  • / 179

সাততলা বস্তির আগুন বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন। ছবি সংগৃহীত

::নিজস্ব প্রতিবেদক::

অবৈধ গ্যাস ও বৈদ্যুতিক সংযোগ থেকে রাজধানীর মহাখালীর সাততলা বস্তিতে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন।

সোমবার ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সাজ্জাদ হোসাইন বলেন, আমরা অগ্নিকাণ্ডের খবর পাই ভোর ৩টা ৫৯ মিনিটে। ১৩ মিনিটের মধ্যে আমাদের প্রথম ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং তখন থেকে আমরা কাজ করছি। পরে সকাল ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, বস্তিতে টিনের ঘর অনেক বেশি সেপারেশন হওয়ায় আমাদের আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আমাদের ১৮টি ইউনিট কাজ করেছে। এখন পর্যন্ত আগুনে কোনো হতাহতের ঘটনা আমাদের চোখে পড়েনি, কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা এখনই বলা সম্ভব নয়, তবে শতাধিক ঘর পুড়ে গেছে বলে আমরা ধারণা করছি।

আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে ফায়ার সার্ভিসের ডিজি বলেন, এখানে প্রচুর পরিমাণে অবৈধ গ্যাস ও বিদ্যুতের লাইন রয়েছে। আমরা প্রাথমিকভাবে মনে করছি, এই দুইটার যেকোনো একটির কারণে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

এ ব্যাপারে একজন ডেপুটি ডিরেক্টরের (ডিডি) নেতৃত্বে চার সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির অনুসন্ধানে আগুনের প্রকৃত কারণ বেরিয়ে আসবে বলে জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

অবৈধ গ্যাস-বিদ্যুৎ সংযোগ থেকে আগুনের সূত্রপাত

আপডেট : ১১:৪২:১২ পূর্বাহ্ন, সোমাবার, ৭ জুন ২০২১
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

অবৈধ গ্যাস ও বৈদ্যুতিক সংযোগ থেকে রাজধানীর মহাখালীর সাততলা বস্তিতে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন।

সোমবার ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সাজ্জাদ হোসাইন বলেন, আমরা অগ্নিকাণ্ডের খবর পাই ভোর ৩টা ৫৯ মিনিটে। ১৩ মিনিটের মধ্যে আমাদের প্রথম ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং তখন থেকে আমরা কাজ করছি। পরে সকাল ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, বস্তিতে টিনের ঘর অনেক বেশি সেপারেশন হওয়ায় আমাদের আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আমাদের ১৮টি ইউনিট কাজ করেছে। এখন পর্যন্ত আগুনে কোনো হতাহতের ঘটনা আমাদের চোখে পড়েনি, কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা এখনই বলা সম্ভব নয়, তবে শতাধিক ঘর পুড়ে গেছে বলে আমরা ধারণা করছি।

আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে ফায়ার সার্ভিসের ডিজি বলেন, এখানে প্রচুর পরিমাণে অবৈধ গ্যাস ও বিদ্যুতের লাইন রয়েছে। আমরা প্রাথমিকভাবে মনে করছি, এই দুইটার যেকোনো একটির কারণে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

এ ব্যাপারে একজন ডেপুটি ডিরেক্টরের (ডিডি) নেতৃত্বে চার সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির অনুসন্ধানে আগুনের প্রকৃত কারণ বেরিয়ে আসবে বলে জানান তিনি।