ঢাকা ০৬:৫৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মিথ্যা বলা বিএনপির বেসাতি

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট : ০৪:৪৯:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩
  • / 157
প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপির নেতারা ক্রমাগতভাবে বলে যাচ্ছে আমরা নাকি দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছি। আপনারাই বলেন, আজকেও শতাধিক উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করলাম। এগুলো কি ধ্বংসের নমুনা? তাহলে তারা এতো মিথ্য কথা বলে কেন? কারণ মিথ্যা বলাটা তাদের বেসাতি।

শনিবার ময়মনসিংহে আওয়ামী লীগের জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন। ময়মনসিংহ জেলা সার্কিট হাউজ মাঠে এ জনসভার আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার মাসে আমি আপনাদের সামনে উপস্থিত হয়েছি। আপনাদের জন্য কিছু উপহার নিয়ে এসেছি। এরপর তিনি বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করেন।

খাদ্য উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কারো কাছে যেন আমাদের হাত পাততে না হয়। চাষাবাদ, ফসল উৎপাদন পশুপালনসহ যে যেটা পারেন সেই কাজ করতে হবে। যেভাবেই হোক উৎপাদন বাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা সবাইকে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। যারা উদ্যোক্তা হিসেবে কাজ করবে, তাদের জন্য আমরা প্রণোদনার ব্যবস্থা করেছি। আজকে ফ্রিল্যান্সাররা ভালো রোজগার করছে।

আরো পড়ুন: জয় বাংলা স্লোগানে মুখরিত ময়মনসিংহের রাজপথ

শেখ হাসিনার এ জনসভায় রেকর্ডসংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিতি ছিলেন। সকাল থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা এসেছেন। সমাবেশ জমিয়ে তুলতে এরই মধ্যে সাংস্কৃতিক মঞ্চ থেকেও চলছে একের পর এক পরিবেশনা। জনসভা বিকেলে হলেও এরইমধ্যে জনসমুদ্র্রে পরিণত হয়েছে ময়মনসিংহের সার্কিট হাউজ মাঠ। তাকে সামনে থেকে এক নজর দেখার অপেক্ষায় সবাই। লাখো মানুষের স্লোগানে মুখর জনসভা ময়দান।

দীর্ঘ পাঁচ বছর পর প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে উৎসবের নগরীতে পরিণত হয়েছে ময়মনসিংহ। বিকেলে সার্কিট হাউস মাঠ থেকে ৭৩টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধনের পাশাপাশি ৩০টির ভিত্তিস্থাপনের কথা রয়েছে তার। এছাড়াও আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বিকেলে ভাষণ দেবেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মিথ্যা বলা বিএনপির বেসাতি

আপডেট : ০৪:৪৯:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩
প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপির নেতারা ক্রমাগতভাবে বলে যাচ্ছে আমরা নাকি দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছি। আপনারাই বলেন, আজকেও শতাধিক উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করলাম। এগুলো কি ধ্বংসের নমুনা? তাহলে তারা এতো মিথ্য কথা বলে কেন? কারণ মিথ্যা বলাটা তাদের বেসাতি।

শনিবার ময়মনসিংহে আওয়ামী লীগের জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন। ময়মনসিংহ জেলা সার্কিট হাউজ মাঠে এ জনসভার আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার মাসে আমি আপনাদের সামনে উপস্থিত হয়েছি। আপনাদের জন্য কিছু উপহার নিয়ে এসেছি। এরপর তিনি বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করেন।

খাদ্য উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কারো কাছে যেন আমাদের হাত পাততে না হয়। চাষাবাদ, ফসল উৎপাদন পশুপালনসহ যে যেটা পারেন সেই কাজ করতে হবে। যেভাবেই হোক উৎপাদন বাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা সবাইকে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। যারা উদ্যোক্তা হিসেবে কাজ করবে, তাদের জন্য আমরা প্রণোদনার ব্যবস্থা করেছি। আজকে ফ্রিল্যান্সাররা ভালো রোজগার করছে।

আরো পড়ুন: জয় বাংলা স্লোগানে মুখরিত ময়মনসিংহের রাজপথ

শেখ হাসিনার এ জনসভায় রেকর্ডসংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিতি ছিলেন। সকাল থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা এসেছেন। সমাবেশ জমিয়ে তুলতে এরই মধ্যে সাংস্কৃতিক মঞ্চ থেকেও চলছে একের পর এক পরিবেশনা। জনসভা বিকেলে হলেও এরইমধ্যে জনসমুদ্র্রে পরিণত হয়েছে ময়মনসিংহের সার্কিট হাউজ মাঠ। তাকে সামনে থেকে এক নজর দেখার অপেক্ষায় সবাই। লাখো মানুষের স্লোগানে মুখর জনসভা ময়দান।

দীর্ঘ পাঁচ বছর পর প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে উৎসবের নগরীতে পরিণত হয়েছে ময়মনসিংহ। বিকেলে সার্কিট হাউস মাঠ থেকে ৭৩টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধনের পাশাপাশি ৩০টির ভিত্তিস্থাপনের কথা রয়েছে তার। এছাড়াও আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় বিকেলে ভাষণ দেবেন তিনি।