ঢাকা ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উৎপাদনে ফিরেছে আদানির বিদ্যুৎ কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট : ০৫:৫৭:৩৪ অপরাহ্ন, সোমাবার, ১ জুলাই ২০২৪
  • / 32
কারিগরি ত্রুটির কারণে ৬০ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ঝাড়খণ্ডের আদানি গ্রুপের বিদ্যুৎ কেন্দ্রের একটি ইউনিট থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়েছে। এর আগে গত শুক্রবার বিদ্যুৎকেন্দ্রটি থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়।

সোমবার (১ জুলাই) দুপুরে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) এ তথ্য জানায়।

পিডিবির মুখপাত্র শামীম হাসান জানান, আজ সোমবার (১ জুলাই) সকাল পৌনে ৮টার দিকে একটি ইউনিট পুনরায় উৎপাদনে ফিরেছে। এখন ৭০০ মেগাওয়াটের বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে।

বাংলাদেশে বিদ্যুৎ রফতানির জন্য ঝাড়খণ্ডের গড্ডায় ১ হাজার ৬০০ মেগাওয়াট সক্ষমতার একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরি করেছে আদানি পাওয়ার। এ বিদ্যুৎকেন্দ্রের দুটি ইউনিট থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ সরবরাহ করছিল কোম্পানিটি।

ঈদে বিদ্যুৎ চাহিদা কম থাকায় কেন্দ্রটির একটি ইউনিট নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণে যায়, এতে বাংলাদেশে অব্যাহতভাবে লোডশেডিংয়ে থাকা বিদ্যুৎ সরবরাহে তীব্র চাপ সৃষ্টি হয়। এরই মধ্যে শুক্রবার (২৮ জুন) যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে অন্য ইউনিটটি বন্ধ হয়ে যায়।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) জানায়, রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ঈদের ছুটিতে কেন্দ্রের প্রথম ইউনিটটির উৎপাদন বন্ধ করা হয়। এটি ৫ জুলাই উৎপাদনে ফিরতে পারে। কিন্তু তার আগেই প্রথম ইউনিট উৎপাদন শুরু করেছে।

প্রসঙ্গত, কারিগরি ত্রুটির কারণে গত ২৫ জুন থেকেই দ্বিতীয় ইউনিটের উৎপাদন কমে গিয়েছিল। উৎপাদন বাড়াতে কাজ করছিলেন প্রকৌশলীরা। কিন্তু গত শুক্রবার সকাল পৌনে ১০টায় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

উৎপাদনে ফিরেছে আদানির বিদ্যুৎ কেন্দ্র

আপডেট : ০৫:৫৭:৩৪ অপরাহ্ন, সোমাবার, ১ জুলাই ২০২৪
কারিগরি ত্রুটির কারণে ৬০ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ঝাড়খণ্ডের আদানি গ্রুপের বিদ্যুৎ কেন্দ্রের একটি ইউনিট থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়েছে। এর আগে গত শুক্রবার বিদ্যুৎকেন্দ্রটি থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়।

সোমবার (১ জুলাই) দুপুরে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) এ তথ্য জানায়।

পিডিবির মুখপাত্র শামীম হাসান জানান, আজ সোমবার (১ জুলাই) সকাল পৌনে ৮টার দিকে একটি ইউনিট পুনরায় উৎপাদনে ফিরেছে। এখন ৭০০ মেগাওয়াটের বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে।

বাংলাদেশে বিদ্যুৎ রফতানির জন্য ঝাড়খণ্ডের গড্ডায় ১ হাজার ৬০০ মেগাওয়াট সক্ষমতার একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরি করেছে আদানি পাওয়ার। এ বিদ্যুৎকেন্দ্রের দুটি ইউনিট থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ সরবরাহ করছিল কোম্পানিটি।

ঈদে বিদ্যুৎ চাহিদা কম থাকায় কেন্দ্রটির একটি ইউনিট নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণে যায়, এতে বাংলাদেশে অব্যাহতভাবে লোডশেডিংয়ে থাকা বিদ্যুৎ সরবরাহে তীব্র চাপ সৃষ্টি হয়। এরই মধ্যে শুক্রবার (২৮ জুন) যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে অন্য ইউনিটটি বন্ধ হয়ে যায়।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) জানায়, রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ঈদের ছুটিতে কেন্দ্রের প্রথম ইউনিটটির উৎপাদন বন্ধ করা হয়। এটি ৫ জুলাই উৎপাদনে ফিরতে পারে। কিন্তু তার আগেই প্রথম ইউনিট উৎপাদন শুরু করেছে।

প্রসঙ্গত, কারিগরি ত্রুটির কারণে গত ২৫ জুন থেকেই দ্বিতীয় ইউনিটের উৎপাদন কমে গিয়েছিল। উৎপাদন বাড়াতে কাজ করছিলেন প্রকৌশলীরা। কিন্তু গত শুক্রবার সকাল পৌনে ১০টায় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়।