ঢাকা ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ত্যাগী নেতাদের অগ্রাধিকার দিতে হবে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ০২:০৫:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ জুন ২০২১
  • / 152
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বসন্তের কোকিলদের হাতে দল টিকবে না। ত্যাগী নেতাদের অগ্রাধিকার দিতে হবে। রোববার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, চিহ্নিত অপরাধী, চাঁদাবাজ, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও বিতর্কিত ব্যক্তিদের কোনো অবস্থাতেই দলে টানা যাবে না। ত্যাগীদের মূল্যায়ন করতে হবে।

নেতাদের অক্ষরে অক্ষরে সব সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে সুদৃঢ় ঐক্য ফিরিয়ে আনতে হবে।

দলের মধ্যে কোনো বিশৃঙ্খলা সহ্য করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কর্মীরা কোণঠাসা হয়ে গেলে আওয়ামী লীগ কোণঠাসা হয়ে যাবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, দুর্নীতি ও অপকর্মের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। অথচ অপকর্মের জন্য বিএনপি আমলে তাদের নেতাদের কোনো বিচারের মুখোমুখি হতে হতো না।

তিনি বলেন, এদেশে লুটপাট তন্ত্র চালু করেছিল বিএনপি। নিজ কর্মেই জিয়া ইতিহাসের খল নায়কে পরিণত হয়েছে। বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে বহুদলীয় তামাশার প্রচলন করেছিলো বিএনপি।

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিএনপি এদেশের জন্য কি করেছে যার জন্য জনগণ তাদের আন্দোলনে সায় দিবে? বিএনপি মানুষের উন্নয়ন চায় না তারা নিজেদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে চায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ত্যাগী নেতাদের অগ্রাধিকার দিতে হবে

আপডেট : ০২:০৫:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ জুন ২০২১
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বসন্তের কোকিলদের হাতে দল টিকবে না। ত্যাগী নেতাদের অগ্রাধিকার দিতে হবে। রোববার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, চিহ্নিত অপরাধী, চাঁদাবাজ, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও বিতর্কিত ব্যক্তিদের কোনো অবস্থাতেই দলে টানা যাবে না। ত্যাগীদের মূল্যায়ন করতে হবে।

নেতাদের অক্ষরে অক্ষরে সব সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে সুদৃঢ় ঐক্য ফিরিয়ে আনতে হবে।

দলের মধ্যে কোনো বিশৃঙ্খলা সহ্য করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কর্মীরা কোণঠাসা হয়ে গেলে আওয়ামী লীগ কোণঠাসা হয়ে যাবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, দুর্নীতি ও অপকর্মের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। অথচ অপকর্মের জন্য বিএনপি আমলে তাদের নেতাদের কোনো বিচারের মুখোমুখি হতে হতো না।

তিনি বলেন, এদেশে লুটপাট তন্ত্র চালু করেছিল বিএনপি। নিজ কর্মেই জিয়া ইতিহাসের খল নায়কে পরিণত হয়েছে। বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে বহুদলীয় তামাশার প্রচলন করেছিলো বিএনপি।

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিএনপি এদেশের জন্য কি করেছে যার জন্য জনগণ তাদের আন্দোলনে সায় দিবে? বিএনপি মানুষের উন্নয়ন চায় না তারা নিজেদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে চায়।