ঢাকা ০৮:০৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘আরে মাইরলে, তিনজনরে মারি হালাইবি’ লাইভে বললেন কাদের মির্জা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ০৩:৪৭:২২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ জুন ২০২১
  • / 190
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

কাদের মির্জা বলেছেন, ‘আপনি আরে ডুবাইবেন, আপনি বুঝি বাঁচি যাইবেন। আরে মারি হালাইবেন, আই রেডি করি যামু। কারে রেডি করমু কইতাম হাইত্তাম ন। হিগুনের পারিবারিক দায়িত্ব-টায়িত্ব নিয়ে কই দিছি। তিনজনের নাম কইছি। আরে মাইরলে, তিনজনরে মারি হালাইবি।’

শনিবার দুপুর ১২টার দিকে নিজের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে আসেন নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র। লাইভে ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তাকে মারলে লাইভে তিনজনকে মারার নির্দেশ দেন কাদের মির্জা। সেই তিনজন হলেন- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, তার স্ত্রী ইশরাতুন্নেসা কাদের ও নোয়াখালী-৪ আসনের সাংসদ মোহাম্মদ একরামুল করিম চৌধুরী।

কাদের মির্জা বলেন, ‘এক আপনি, আপনার স্ত্রী ও একরাইম্যা। তিনগারে মারি হালাইবি। জেলে দেক। আঙোরে হত্যা করবে বলে হুমকি দিছে বলি আর বিরুদ্ধে মামলা করুক, করবে আমি জানি। আরে কইরলে কইছি।’

ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে লাইভে তিনি বলেন, ‘আজকে ঘরের শত্রু আমাকে শেষ করে দিয়েছে। ওবায়দুল কাদের সাহেব আমার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। কী জন্য নিয়েছেন, সেটি খুঁজে পেয়েছি। আমি উনার এবং উনার স্ত্রীর অপরাজনীতির বিরুদ্ধে কথা বলেছি। তাদের সকল আমলনামা আমি আমার হাতে রেখেছি। এগুলো এখনো জনসমক্ষে তুলে ধরিনি, সংবাদমাধ্যমে তুলে ধরিনি।’

বাংলাদেশে ওয়ানম্যান শো রাজনীতি শুরু হয়ে গেছে মন্তব্য করে কাদের মির্জা বলেন, এখন বাংলাদেশে ওয়ানম্যান শো রাজনীতি শুরু হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগে শেখ হাসিনা, বিএনপির খালেদা জিয়া। এর বাইরে কিছু নেই।

সবাই তোষামোদ করে উল্লেখ করে এসময় তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার বাহিরে দলে কে কী কাজ করে? সবাই তোষামোদ করে। এই তোষামোদকারীরা খন্দকার মোশতাক। নেত্রী, আপনাকে ওবায়দুল কাদেরের মতো তোষামোদকারীরা কোথায় নিয়ে যাচ্ছে, দেখবেন একদিন।’

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

‘আরে মাইরলে, তিনজনরে মারি হালাইবি’ লাইভে বললেন কাদের মির্জা

আপডেট : ০৩:৪৭:২২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ জুন ২০২১
::নিজস্ব প্রতিবেদক::

কাদের মির্জা বলেছেন, ‘আপনি আরে ডুবাইবেন, আপনি বুঝি বাঁচি যাইবেন। আরে মারি হালাইবেন, আই রেডি করি যামু। কারে রেডি করমু কইতাম হাইত্তাম ন। হিগুনের পারিবারিক দায়িত্ব-টায়িত্ব নিয়ে কই দিছি। তিনজনের নাম কইছি। আরে মাইরলে, তিনজনরে মারি হালাইবি।’

শনিবার দুপুর ১২টার দিকে নিজের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে আসেন নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র। লাইভে ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তাকে মারলে লাইভে তিনজনকে মারার নির্দেশ দেন কাদের মির্জা। সেই তিনজন হলেন- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, তার স্ত্রী ইশরাতুন্নেসা কাদের ও নোয়াখালী-৪ আসনের সাংসদ মোহাম্মদ একরামুল করিম চৌধুরী।

কাদের মির্জা বলেন, ‘এক আপনি, আপনার স্ত্রী ও একরাইম্যা। তিনগারে মারি হালাইবি। জেলে দেক। আঙোরে হত্যা করবে বলে হুমকি দিছে বলি আর বিরুদ্ধে মামলা করুক, করবে আমি জানি। আরে কইরলে কইছি।’

ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে লাইভে তিনি বলেন, ‘আজকে ঘরের শত্রু আমাকে শেষ করে দিয়েছে। ওবায়দুল কাদের সাহেব আমার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। কী জন্য নিয়েছেন, সেটি খুঁজে পেয়েছি। আমি উনার এবং উনার স্ত্রীর অপরাজনীতির বিরুদ্ধে কথা বলেছি। তাদের সকল আমলনামা আমি আমার হাতে রেখেছি। এগুলো এখনো জনসমক্ষে তুলে ধরিনি, সংবাদমাধ্যমে তুলে ধরিনি।’

বাংলাদেশে ওয়ানম্যান শো রাজনীতি শুরু হয়ে গেছে মন্তব্য করে কাদের মির্জা বলেন, এখন বাংলাদেশে ওয়ানম্যান শো রাজনীতি শুরু হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগে শেখ হাসিনা, বিএনপির খালেদা জিয়া। এর বাইরে কিছু নেই।

সবাই তোষামোদ করে উল্লেখ করে এসময় তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার বাহিরে দলে কে কী কাজ করে? সবাই তোষামোদ করে। এই তোষামোদকারীরা খন্দকার মোশতাক। নেত্রী, আপনাকে ওবায়দুল কাদেরের মতো তোষামোদকারীরা কোথায় নিয়ে যাচ্ছে, দেখবেন একদিন।’