ঢাকা ০৭:০৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আওয়ামী লীগের ব্যয় বেড়েছে মানবিক কার্যক্রমে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ১১:৪৭:৫৩ পূর্বাহ্ন, সোমাবার, ৩০ অগাস্ট ২০২১
  • / 108

ফাইল ছবি

বিগত বছরের তুলনায় ২০২০ সালে আওয়ামী লীগের আয় কমেছে, বেড়েছে ব্যয়। নিরীক্ষা হিসাব বলছে, অন্যান্য ব্যয়ের পাশাপাশি করোনায় ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনার কারণেই ব্যয় বেড়েছে।

রোবাবার নির্বাচন কমিশনে (ইসি) বাৎসরিক আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দেয় আওয়ামী লীগ।

ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবির খোন্দকারের কাছে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল সোবহান গোলাপ এমপির নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল এই হিসাব জমা দেন। প্রতিনিধি দলে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগের নিরীক্ষা হিসেবে দেখা যায়, ২০২০ শেষে স্থিতি ৩৮ লাখ ৯৩ হাজার ৬০১ টাকা। ২০১৯ পর্যন্ত সর্বমোট স্থিতি ছিল ৫০ কোটি ৩৭ লাখ ৪৩ হাজার ৫৯৩ টাকা। ২০২০ এ স্থিতি প্রায় ০.৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে সর্বমোট স্থিতি ৫০ কোটি ৭৩ লাখ ৩৭ হাজার ১৯৪ টাকা।

নিরীক্ষা প্রতিদেন অনুযায়ী, ২০২০ সালে আওয়ামী লীগের মোট আয় হয়েছে ১০ কোটি ৩৩ লাখ ২৩ হাজার ৫৩৩ টকা। যা ২০১৯ সালের আয়ের তুলনায় ১০ কোটি ৬৮ লাখ ৭৯৭ টাকা কম। ২০১৯ সালের চেয়ে আয় কমেছে ৫১ শতাংশ।

আয় কমার কারণ হিসেবে নিরীক্ষা প্রতিবেদন বলছে, ২০২০ সালে মনোনয়ন ফরম বিক্রয় বাবদ প্রাপ্ত অর্থ পূর্বের বছরের তুলনায় কম হয়েছে। এছাড়া ২০১৯ সালে বেশি আয়ের অন্যতম খাত ছিল আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক কাউন্সিল বাদদ প্রাপ্ত অর্থ।

আয়ের প্রধান খাতগুলোর বিষয়ে নিরীক্ষা প্রতিবেদন বলছে, বিভিন্ন পর্যায়ের সম্মানিত সদস্যবৃন্দের প্রদানকৃত চাঁদা, মনোনয়ন ফরম বিক্রয় ও বিভিন্ন ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠান প্রদত্ত অনুদান প্রভৃতি।

অন্যদিকে নিরীক্ষা প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০ সালে আওয়ামী লীগের মোট ব্যয় হয়েছে ৯ কোটি ৯৪ লাখ ৪৯ হাজার ৯৩১ টাকা। যা ২০১৯ সালের তুলনায় ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে ১ কোটি ৭৩ লাখ ৪৮ হাজার ৩৫৬ টাকা। ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে ২১ শতাংশ।

ব্যয় বৃদ্ধির বিষয়ে নিরীক্ষা প্রতিবেদন বলছে, ২০২০ সালে করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা, বিভিন্ন পর্যায়ে দলীয় প্রার্থীদের প্রতি প্রদত্ত অনুদান, পত্রিকা-প্রকাশনা ও সংশ্লিষ্ট খরচ বাবদ ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে পূর্বের তুলনায় ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে।

ব্যয়ের প্রধান খাতসমূহ- অফিস রক্ষণাবেক্ষণ ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা বাবদ ব্যয়, সংগঠন পরিচালনা ব্যয় ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা ব্যয়।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল সোবহান গোলাপ সাংবাদিকদের বলেন, একটি স্বনামধন্য নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক নিরীক্ষা প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। এটি নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

আওয়ামী লীগের ব্যয় বেড়েছে মানবিক কার্যক্রমে

আপডেট : ১১:৪৭:৫৩ পূর্বাহ্ন, সোমাবার, ৩০ অগাস্ট ২০২১
বিগত বছরের তুলনায় ২০২০ সালে আওয়ামী লীগের আয় কমেছে, বেড়েছে ব্যয়। নিরীক্ষা হিসাব বলছে, অন্যান্য ব্যয়ের পাশাপাশি করোনায় ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনার কারণেই ব্যয় বেড়েছে।

রোবাবার নির্বাচন কমিশনে (ইসি) বাৎসরিক আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দেয় আওয়ামী লীগ।

ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবির খোন্দকারের কাছে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল সোবহান গোলাপ এমপির নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল এই হিসাব জমা দেন। প্রতিনিধি দলে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগের নিরীক্ষা হিসেবে দেখা যায়, ২০২০ শেষে স্থিতি ৩৮ লাখ ৯৩ হাজার ৬০১ টাকা। ২০১৯ পর্যন্ত সর্বমোট স্থিতি ছিল ৫০ কোটি ৩৭ লাখ ৪৩ হাজার ৫৯৩ টাকা। ২০২০ এ স্থিতি প্রায় ০.৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে সর্বমোট স্থিতি ৫০ কোটি ৭৩ লাখ ৩৭ হাজার ১৯৪ টাকা।

নিরীক্ষা প্রতিদেন অনুযায়ী, ২০২০ সালে আওয়ামী লীগের মোট আয় হয়েছে ১০ কোটি ৩৩ লাখ ২৩ হাজার ৫৩৩ টকা। যা ২০১৯ সালের আয়ের তুলনায় ১০ কোটি ৬৮ লাখ ৭৯৭ টাকা কম। ২০১৯ সালের চেয়ে আয় কমেছে ৫১ শতাংশ।

আয় কমার কারণ হিসেবে নিরীক্ষা প্রতিবেদন বলছে, ২০২০ সালে মনোনয়ন ফরম বিক্রয় বাবদ প্রাপ্ত অর্থ পূর্বের বছরের তুলনায় কম হয়েছে। এছাড়া ২০১৯ সালে বেশি আয়ের অন্যতম খাত ছিল আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক কাউন্সিল বাদদ প্রাপ্ত অর্থ।

আয়ের প্রধান খাতগুলোর বিষয়ে নিরীক্ষা প্রতিবেদন বলছে, বিভিন্ন পর্যায়ের সম্মানিত সদস্যবৃন্দের প্রদানকৃত চাঁদা, মনোনয়ন ফরম বিক্রয় ও বিভিন্ন ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠান প্রদত্ত অনুদান প্রভৃতি।

অন্যদিকে নিরীক্ষা প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০ সালে আওয়ামী লীগের মোট ব্যয় হয়েছে ৯ কোটি ৯৪ লাখ ৪৯ হাজার ৯৩১ টাকা। যা ২০১৯ সালের তুলনায় ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে ১ কোটি ৭৩ লাখ ৪৮ হাজার ৩৫৬ টাকা। ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে ২১ শতাংশ।

ব্যয় বৃদ্ধির বিষয়ে নিরীক্ষা প্রতিবেদন বলছে, ২০২০ সালে করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা, বিভিন্ন পর্যায়ে দলীয় প্রার্থীদের প্রতি প্রদত্ত অনুদান, পত্রিকা-প্রকাশনা ও সংশ্লিষ্ট খরচ বাবদ ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে পূর্বের তুলনায় ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে।

ব্যয়ের প্রধান খাতসমূহ- অফিস রক্ষণাবেক্ষণ ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা বাবদ ব্যয়, সংগঠন পরিচালনা ব্যয় ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা ব্যয়।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল সোবহান গোলাপ সাংবাদিকদের বলেন, একটি স্বনামধন্য নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক নিরীক্ষা প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। এটি নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া হয়েছে।