ঢাকা ০৮:২৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বাধীনতার ঘোষক সম্পর্কে এ ধরনের প্রশ্নের জবাব দিতে রুচিতে বাঁধে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ১২:৫১:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • / 136
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, কবরে জিয়াউর রহমানের মরদেহ আছে কি না, এগুলোর উত্তর দেওয়াটা আমাদের পক্ষে কঠিন, ছোট মনে করি। নিকৃষ্ট, রুচিতে বাধে। এটা জাতির দুর্ভাগ্য, স্বাধীনতার ঘোষক বীর উত্তম শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান সম্পর্কে এ ধরনের কথা বলা হয়। এটা দুর্ভাগ্য ছাড়া আর কিছু না।

বুধবার দুপুরে দলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চন্দ্রিমা উদ্যানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, জিয়াউর রহমানের কবরে তাঁর লাশ নেই। এমন প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, এটা জাতির দুর্ভাগ্য, স্বাধীনতার ঘোষক বীর উত্তম শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান সম্পর্কে এ ধরনের কথা বলা হয়। এটা দুর্ভাগ্য ছাড়া আর কিছু না। আমরা পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, জিয়াউর রহমান জাতির অস্তিত্বের সঙ্গে অবিচ্ছেদ্যভাবে জড়িত। তাঁর ঘোষণা মধ্য দিয়ে এ দেশে স্বাধীনতা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়েছে। সুতরাং তাঁকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশের অস্তিত্ব চিন্তা করা যায় না।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীর সমালোচনা করে তার প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, উনাকে উনার নিজের চ্যালেঞ্জ নিতে বলেন। উনি নিজে মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন কি-না সেটা আগে প্রমাণ করুক।

এর আগে মির্জা ফখরুল ইসলাম দলের স্থায়ী কমিটির ৫ জন সদস্যসহ ৫৬ জন নেতা-কর্মী নিয়ে জিয়াউর রহমানের কবরে সূরা ফাতিহা পাঠ করে শ্রদ্ধা জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

স্বাধীনতার ঘোষক সম্পর্কে এ ধরনের প্রশ্নের জবাব দিতে রুচিতে বাঁধে

আপডেট : ১২:৫১:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর ২০২১
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, কবরে জিয়াউর রহমানের মরদেহ আছে কি না, এগুলোর উত্তর দেওয়াটা আমাদের পক্ষে কঠিন, ছোট মনে করি। নিকৃষ্ট, রুচিতে বাধে। এটা জাতির দুর্ভাগ্য, স্বাধীনতার ঘোষক বীর উত্তম শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান সম্পর্কে এ ধরনের কথা বলা হয়। এটা দুর্ভাগ্য ছাড়া আর কিছু না।

বুধবার দুপুরে দলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চন্দ্রিমা উদ্যানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, জিয়াউর রহমানের কবরে তাঁর লাশ নেই। এমন প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, এটা জাতির দুর্ভাগ্য, স্বাধীনতার ঘোষক বীর উত্তম শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান সম্পর্কে এ ধরনের কথা বলা হয়। এটা দুর্ভাগ্য ছাড়া আর কিছু না। আমরা পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, জিয়াউর রহমান জাতির অস্তিত্বের সঙ্গে অবিচ্ছেদ্যভাবে জড়িত। তাঁর ঘোষণা মধ্য দিয়ে এ দেশে স্বাধীনতা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়েছে। সুতরাং তাঁকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশের অস্তিত্ব চিন্তা করা যায় না।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীর সমালোচনা করে তার প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, উনাকে উনার নিজের চ্যালেঞ্জ নিতে বলেন। উনি নিজে মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন কি-না সেটা আগে প্রমাণ করুক।

এর আগে মির্জা ফখরুল ইসলাম দলের স্থায়ী কমিটির ৫ জন সদস্যসহ ৫৬ জন নেতা-কর্মী নিয়ে জিয়াউর রহমানের কবরে সূরা ফাতিহা পাঠ করে শ্রদ্ধা জানান।