মানুষের কল্যাণে সাংবাদিকতাকে কাজে লাগাতে গবেষণা করুন

অনলাইন ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ৪ অক্টোবর ২০২১, ২:৪৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৩ সপ্তাহ আগে
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

মানুষের কল্যাণে সাংবাদিকতাকে কাজে লাগাতে এ পেশার কর্মীদের গবেষণার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে এ গবেষণার জন্য অর্থ দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে অংশগ্রহণ-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। সোমবার (৪ অক্টোবর) বিকেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে সম্মেলনে যোগ দেন সাংবাদিকরা।
এক প্রশ্নের জবাবে সরকারপ্রধান সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, আপনারাও গবেষণা করেন। কীভাবে সাংবাদিকতাটা মানুষের কল্যাণে কাজে লাগানো যায়, মানুষ আরও বেশি উপকৃত হতে পারে, তার গবেষণা করুন।
এসময় প্রধানমন্ত্রী তার তহবিল থেকে এ গবেষণার জন্য অর্থ দেওয়া হবে বলে জানান।

দেশে কিছু ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের সাম্প্রতিক প্রতারণার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষের দুঃসময়ে কিছু প্রতারক তাদের টাকা নিয়ে আত্মসাৎ করে। যখন এসব ‘হায় হায় কোম্পানি’ তৈরি হয়, আপনারা (গণমাধ্যম) একটু সচেতন করলে মানুষ আর বিপদে পড়ে না। আমরা চেষ্টা করবো তাদের (প্রতারিতদের) টাকা হাতে পৌঁছে দিতে। এজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়হীনদের জন্য সরকার যে ঘর উপহার দিয়েছে, সেসবের কিছু ধসে পড়ার বিষয়ে তিনি বলেন, দেড় লাখ ঘর (উপহার) দেওয়া হলো। এগুলোর সবগুলোই কি ভেঙে পড়েছে নাকি কেউ ভেঙেছে। আমরা নয়টি জায়গায় দুর্নীতি পেয়েছি। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নিয়েছি। কিন্তু বাকিগুলোতে কোনো দুর্নীতি ছিল না।
প্রোজেক্টরে ক্ষতিগ্রস্ত কিছু ঘরের ছবি দেখিয়ে তিনি বলেন, এগুলো হাতুড়ি-শাবল দিয়ে ভেঙেছে। আপনারা বিষয়টি একটু ভালো করে দেখেন, খোঁজ নেন। আপনারা এটা খুঁজে বের করলেন না, কারা এটা ভাঙলো। করোনাকালে ঘরগুলো তৈরির ফলে এতো মানুষের কাজের সুযোগ হলো, সেটাও দেখলেন না। আমি কি জানতে পারি কেন আপনারা এটা দেখেননি?

জানি যে কোনো সময় আমার মৃত্যু হতে পারে
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি জানি যে কোনো সময় আমার মৃত্যু হতে পারে। আমার বাবার মতো আমারও একই পরিণতি হতে পারে। এসব জেনেই আমি দেশে পা রেখেছিলাম। কাজ করছি, কোনো ভয় নিয়ে নয়।
১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার ঘটনা স্মরণ করে তার কন্যা বলেন, যারা আমাদের বাড়িতে খেয়েছে-পরেছে, তারাই গুলি করে মেরেছে। পরিকল্পিতভাবে আমার বাবা ও পরিবারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করেছে। বঙ্গবন্ধুর শাসনামলে যে দুর্ভিক্ষটা হয়েছিল তাও পরিকল্পিত ছিল। খাদ্যসহায়তার জন্য যে জাহাজ এলো তা ফিরিয়ে দেওয়া হলো। উত্তরবঙ্গে দুর্ভিক্ষে বহু মানুষ মারা গেলো। একজন মহান নেতার মতো বঙ্গবন্ধু সেটা সংসদে স্বীকারও করলেন যে, আমি মানুষের মৃত্যু ঠেকাতে পারিনি। পৃথিবীতে এমন আর কাউকে দেখেছেন? শুধু তাই নয়, শেখ কামালকে নিয়েও অপপ্রচার হয়েছে।

সার্চ কমিটির মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে
নির্বাচন কমিশন নিয়ে সাম্প্রতিক বিভিন্ন আলোচনার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি প্রক্রিয়া রয়েছে, মহামান্য রাষ্ট্রপতি একটি সার্চ কমিটি গঠন করবেন। সার্চ কমিটির সুপারিশের মধ্য দিয়ে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন হবে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...