কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনার জন্য দায়ী যুক্তরাষ্ট্র: কিম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২১, ১২:২০ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ সপ্তাহ আগে
উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন। ছবি: সংগৃহীত

উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন কোরীয় উপদ্বীপে উত্তেজনার জন্য মূলত যুক্তরাষ্ট্র দায়ী বলে অভিযোগ করেছেন। একইসঙ্গে তিনি দক্ষিণ কোরিয়াকে ‘কপট’ বলেও উল্লেখ করেছেন। পরমাণু শক্তিধর উত্তর কোরিয়ার অস্ত্র প্রদর্শনী উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন। মঙ্গলবার দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম এ খবর জানিয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানায়, ‘আত্মরক্ষা-২০২১’ নামক প্রদর্শনী উদ্বোধনকালে কিম তার ভাষণে অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেন।

রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা গেছে, কিম প্রদর্শনীতে বিশাল আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের (আইসিবিম) সামনে দাঁড়িয়ে আছেন। এটি গত বছরের সামরিক প্যারেডে প্রথম প্রদর্শিত হয়।

উত্তর কোরিয়া সম্প্রতি দূর পাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা এবং ট্রেন থেকে অস্ত্রের উৎক্ষেপণ করে। একে তারা হাইপারসনিক যুদ্ধ বোমা হিসেবে উল্লেখ করে।

নিষিদ্ধ পরমাণু অস্ত্র এবং ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির কারণে উত্তর কোরিয়ার ওপর একাধিক আন্তর্জাতিক অবরোধ আরোপ করা হয়েছে।

অবশ্য বাইডেন প্রশাসন বারবার বলছে, পিয়ংইয়ংয়ের (উত্তর কোরিয়ার রাজধানী) প্রতি তাদের কোন শত্রুতা নেই।

কেসিএনএন উত্তর কোরীয় নেতার উদ্ধৃতি দিয়ে আরও জানায়, তারা যে শত্রু নয়, তাদের আচরণে এ কথা বিশ্বাসের কোন ভিত্তি নেই। তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়ার এসব অস্ত্র আত্মরক্ষার জন্য। কোন বিশেষ দেশকে লক্ষ্য করে নয়।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...