আজ জিততেই হবে

অনলাইন ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১:৫২ অপরাহ্ণ | আপডেট: ১ মাস আগে

জ্বলে উঠছে না সাকিবের ব্যাট। ছবি: ক্রিকইনফো

হারের বৃত্ত থেকে বের হতেই পারছে না বাংলাদেশ দল। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে হারের পর প্রথম রাউন্ডে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হার। বলা বাহুল্য, টিম বাংলাদেশ আজ বেশ চাপ নিয়েই মাঠে নামবে।

দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেয়েছিল টাইগাররা। কিন্তু বিদেশে গিয়ে লেজে-গোবরে অবস্থা। আজ রাত ৮টায় স্বাগতিক ওমানের বিপক্ষে মাঠে গড়াবে খেলা। এ ম্যাচটিতে কি টাইগাররা জিতবে?

এ প্রশ্ন এখন অবান্তর নয়। কারণ, আন্ডারডগ তিনটি দলের সঙ্গে ইতোমধ্যে হেরেছে তারা। তাই উদ্বেগ থেকেই যাচ্ছে। কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না, ম্যাচটি বাংলাদেশের জন্য টিকা থাকার লড়াই। ওমানের সঙ্গে হার মানে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিশ্চিত হওয়া।

ফলে চরম চাপেই রয়েছেন সাকিব-মুশফিকরা। অপরদিকে নির্ভার ওমান। তারা বেশ বড় ব্যবদানে হারিয়েছে পাপুয়া নিউগিনিকে। এ ম্যাচে ওমানকে হারালেও বাংলাদেশকে মোকাবেলা করতে হতে পারে রান রেটের ফাড়া।

বাংলাদেশ কি বিশ্বকাপের মূল পর্বে পৌঁছাতে পারবে? এমন একটি প্রশ্ন সবার মনে ঘুরপাক খাচ্ছে। একটি জয় নিয়ে ওমান যেখানে উজ্জীবিত, সেখানে বাংলাদেশ পরাজয়ের বৃত্তে আবর্তিত। তারা কি পারবে এ বৃত্ত ভেঙ্গে দিতে?

শেষ ম্যাচে টাইগাররা স্কটিশদের শুরুর দিকে বেশ চাপে ফেলতে সক্ষম হয়েছিল। ৬০ রানের মধ্যে ছয়টি উইকেট তুলে নিয়েছিলেন মোস্তাফিজ-সাইফরা। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। বাকি চার উইকেটে ১৪০ রানের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয় স্কটিশরা, যা মোকাবেলা করতে পারেনি বাংলাদেশ দল।

টি-টোয়ান্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে যেতে হলে বাকি দুই ম্যাচে (আজকের ম্যাচ ও পাপুয়া নিউগিনির সঙ্গে পরবর্তী ম্যাচ) বড় ব্যবধানে জিততে হবে টাইগারদের। এটাই তাদের লক্ষ্য থাকতে হবে।

গত ম্যাচে যে দল নিয়ে নেমেছিল টাইগাররা, এ ম্যাচেও কি সেই একই দল থাকবে? গত ম্যাচে টপ অর্ডারের ব্যর্থতা ছিল চোখে পড়ার মতো। সে কারণে টপ অর্ডারে পরিবর্তন দেখা যেতে পারে।

বলা হয়, ওমানের টপ অর্ডার তাদের ব্যাটিংয়ের মূল শক্তি। বাংলাদেশ দলকে অবশ্যই বিষয়টি আমলে নিতে হবে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের দ্রুত ফিরিয়ে দিতে পারলে টাইগারদের জন্য জয় সহজ হয়ে উঠবে বলেই মনে হয়।

সেইসঙ্গে ভালো ব্যাটিংতো অবশ্যই প্রয়োজন। চার-ছক্কার ফুলঝুরি না হোক, প্রয়োজনে রানের চাকা ভালোভাবেই গতিশীল রাখতে হবে। টাইগারদের ব্যাটিং বড় উদ্বেগের কারণ।

টিম বাংলাদেশ বিজয়ী হোক- এ প্রত্যাশায় আজ ১৬ কোটি চোখ তাকিয়ে থাকবে টেলিভিশনের পর্দায়। টাইগাররা নিরাশ করবে না, এ আশাতো আমরা করতেই পারি।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...