সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিয়ে সহিংসতা ঘটাচ্ছে

অনলাইন ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:১২ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ১ মাস আগে

ছবি সংগৃহীত

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিয়ে নাশকতা ও সহিংসতার ঘটনা ঘটানো হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। মঙ্গলবার ডিআরইউর উদ্যোগে ফার্মগেট খামারবাড়ি কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ এর মিলনায়তনে ‘নগদ-ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড ২০২১’ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন তিনি।

মিডিয়া অ্যাথিস্ট ফলো করা খুবই জরুরি মন্তব্য করে তিনি বলেন, সোশ্যাল মিডিয়া বা ফেসবুকে কিংবা অনলাইনে পোস্ট দিয়ে অনেক ধরনের নাশকতা ও সহিংসতার ঘটনা ঘটানো হচ্ছে। সেগুলো থেকে কিভাবে আমরা মানুষ ও সমাজকে সুরক্ষিত রাখতে পারি, সেটা নিয়েও আমাদেরকে ভাবতে হবে। আর বিশ্বে যে আজকে সোশ্যাল মিডিয়ায় মিথ্যা নিউজ ও প্রপাগান্ডা ক্যাপচার করে ফেলে, সেখানে ইতিবাচক সাংবাদিকতাই পারে সমাজে পরিবর্তন আনতে।

আজকে গণমাধ্যম সকল ধরনের সংবাদ প্রচার করছে উল্লেখ করে শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, গণমাধ্যমগুলো বিশ্বের বিভিন্ন জায়গা থেকে খবর সংগ্রহ করে মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে। আর বর্তমানে সামাজিক মাধ্যম ব্যাপক প্রসারের কারণে নানা ইস্যু নতুন চ্যালেঞ্জ হিসেবে আসছে। সেক্ষেত্র আমাদের গণমাধ্যম কর্মী, প্রতিনিধি এবং যারা সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে জড়িত আছেন তাদের এই নতুন চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে ভাবতে হবে। আর আমরা যেভাবেই ব্যাখ্যা করি না কেনো, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে যদি আমরা গণমাধ্যমকে ধরি- তাহলে গণমাধ্যম আজ জনজীবনে এক অপরিসীম অনুগ্রহ।

তথ্য প্রভাবে বাংলাদেশ এক সুবর্ণ সময়ের মধ্যে দিয়ে অতিবাহিত করছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিশেষ করে তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে আমাদের যে সফলতা, এই ডিজিটাল বাংলাদেশের কারণেই আজকে করোনার মহামারীর মধ্যেও ভার্চুয়ালীর মাধ্যমে আমরা সারাদেশে যোগাযোগ করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে যে ডিজিটাল বাংলাদেশের ঘোষণা দিয়েছিলেন, তা আজ সম্পূর্ণ হয়েছে। এব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই।

ডিআরইউ ১৯৯৫ সাল থেকে পথচলা শুরু করেছে উল্লেখ করে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন বলেন, অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দীর্ঘ ২৫ বছরের অধিক সময় ধরে সুনামের সঙ্গে তারা তাদের দায়িত্ব পালন করছে। যা প্রশংসার দাবিদার।

জাতীয় সংসদের সংবাদের বিষয়ে ওপর অ্যাওয়ার্ড দেয়ার জন্য ডিআরইউকে পরামর্শ দেন শিরীন শারমিন চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে নগদ-ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড ২০২১’ এর চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ জার্নালের সম্পাদক শাহজাহান সরদার বলেন, ডিআরইউ বাংলাদেশের একক একটি ঐক্যবদ্ধ সংগঠন। সাংবাদিকদের কল্যাণে দলমত নির্বিশেষে আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছি। এভাবেই আমরা ঐক্যবদ্ধ থেকে সাংবাদিকদের জন্য কাজ করতে চাই।

বৈশ্বিক করোনা মহামারীতে বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশও বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে গেছে উল্লেখ করে শাহজাহান সরদার বলেন, যেখানে জীবন-যাপন কঠিন সেখানে সাংবাদিকরা যেভাবে কষ্ট করে রির্পোট করেছে, সেটা নজীরবিহীন। এজন্য আমি সাংবাদিকদেরকে ধন্যবাদ জানাই।

পরে জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান শাহজাহান সরদার, সদস্য মনজুরুল আহসান বুলবুল, মোস্তফা কামাল মজুমদার, মুস্তাফিজ শফি এবং মনোয়ার হোসেনের হাতে সম্মাননা তুলে দেন শিরীন শারমিন চৌধুরী।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ‘বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড ২০২১’ নগদ অংশীদার হওয়ায় ডিআরইউর পক্ষ থেকে ভিডিও বার্তায় শুভেচ্ছা জানানো হয়।

ভিডিও বার্তা দিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, শাহজাহান সরদার এবং ডিআরইউর সভাপতি মুরসালিন নোমানীর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খান।

ডিআরইউর সভাপতি মুরসালিন নোমানীর সভাপতি অনুষ্ঠানে নগদের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর এ মিশুক, নগদের নির্বাহী পরিচালক নিয়াজ মোর্শেদ এলিট, ডিআরইউর সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মাইনুল হাসান সোহেল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...