লিবারপুল বিস্ফোরণ ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
  • প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০২১, ১২:৩৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: ২ সপ্তাহ আগে

বিস্ফোরণের পর গাড়িটিতে আগুন ধরে যায়। ছবি: গ্লোবাল নিউজ

যুক্তরাজ্যে লিবারপুল উইমেনস হাসপাতালের বাইরে বিস্ফোরণকে ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ বলে ঘোষণা করেছে দেশটির পুলিশ। রোববার পুলিশ এ ঘোষণা দেয়। খবর বিবিসির।

ওই গাড়ি বিস্ফোরণে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এর জেরে সন্ত্রাসবাদ আইনে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ব্রিটিশ গণমাধ্যমটি জানায়, রোববার স্থানীয় সময় বেলা ১১টার ঠিক আগে একটি ট্যাক্সি একজন যাত্রীকে তুলে উইমেনস হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় বিস্ফোরিত হয়।

ঘটনার সময় সেখানে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অবদান রাখা সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তাদের সম্মানে জাতীয় স্মরণানুষ্ঠানে দুই মিনিটের নীরবতা পালন শুরু হওয়ার কথা ছিল। ট্যাক্সিতে থাকা যাত্রীকে ঘটনাস্থলেই মৃত ঘোষণা করা হয়।

বিস্ফোরণের ঘটনায় পুরুষ ট্যাক্সিচালক আহত হয়েছেন। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এবং তার অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গেছে।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, লিভারপুল শহরের কেনসিংটন এলাকা থেকে যথাক্রমে ২৯, ২৬ ও ২১ বছর বয়সী তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তখন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলেন, বিস্ফোরণের কারণ সম্পর্কে জানতে তারা চোখ-কান খোলা রেখেছেন এবং তারা মার্সিসাইড পুলিশের সঙ্গে কাজ করছেন। এ ব্যাপারে তদন্ত নিজস্ব গতিতে চলছে। নিরাপত্তা বাহিনী ও এমআইফাইভ এ ক্ষেত্রে সব ধরনের সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে।

এরই মধ্যে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সশস্ত্র কর্মকর্তারা সেফটন পার্কের কাছে রাটল্যান্ড অ্যাভিনিউ এবং কেনসিংটনের বোলার স্ট্রিটে অভিযান চালিয়েছেন।

বিস্ফোরণের স্থানটি এখন ঘেরাও করে রাখা হয়েছে এবং সংশ্লিষ্ট এলাকার অনেক বাসিন্দাকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশের পাশাপাশি ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরাও অবস্থান করছেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন টুইট করেছেন, ‘লিভারপুলের ভয়াবহ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি আমি সমবেদনা জানাই।’ তিনি বলেন, ‘এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে পেশাদারিত্বের পরিচয় দেয়ার জন্য জরুরি পরিষেবাগুলোকে এবং তদন্ত চালিয়ে যাওয়ার জন্য পুলিশকে ধন্যবাদ জানাই।’

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রীতি প্যাটেল টুইট করে জানিয়েছেন, তাকে ‘ভয়াবহ এ ঘটনার বিষয়ে নিয়মিত হালনাগাদ তথ্য জানানো হচ্ছে।’

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...