ঢাকা ০৫:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘বাংলাদেশ-নেপাল সড়ক যোগাযোগের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট : ০১:১০:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • / 213

স্থলবন্দর পরিদর্শনে নেপালের রাষ্ট্রদূত ডা. বংশিধর মিশ্র

ভারতের শিলিগুড়ি করিডোর ব্যবহার করে সড়কপথে নেপালের সাথে সহজ যোগাযোগ স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত ডা. বংশিধর মিশ্র।

বৃহস্পতিবার দুপুরে শেরপুরের নালিতাবাড়ী নাকুঁগাও স্থলবন্দর পরিদর্শনকালে এর সম্ভাব্যতা যাচাই শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এ কথা বলেন তিনি।

রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ ও নেপালের সম্পর্ক বন্ধুর মতো। জাতিগতভাবে আমরা প্রায় একই। এই দুই দেশের মানুষের মধ্যে সংস্কৃতি, ব্যবসা-বাণিজ্য ও মানুষের সাথে মানুষের সম্পর্ক বৃদ্ধির লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। তারই ধারাবাহিকতায় ভারতের শিলিগুড়ি করিডোর ব্যবহার করে সড়কপথে নেপালের সাথে সহজ যোগাযোগ স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

ডা. বংশিধর মিশ্র আরও বলেন, করোনা মহামারীর পর বাংলাদেশের সাথে আরও বেশকিছু চুক্তি সম্পাদন করতে পারবো বলে আশা করছি। তাই এখানকার যোগাযোগ ব্যবস্থা ও সুযোগ-সুবিধা পর্যবেক্ষণ করে গেলাম। পরবর্তীতে চুক্তি করার লক্ষ্যে এ বিষয়গুলো কাজে আসবে।

এই বন্দর দিয়ে ভুটানের সাথে যোগাযোগ রয়েছে, তবে নেপালের সাথে কেনো নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, নেপালের সাথে যোগাযোগের জন্য এই স্থলবন্দর হতে পারে ভালো একটি মাধ্যম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুক্তাদিরুল আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নালিতাবাড়ী সার্কেল) আফরোজা নাজনীন, পৌর মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিকসহ অনেকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

‘বাংলাদেশ-নেপাল সড়ক যোগাযোগের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে’

আপডেট : ০১:১০:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২১
ভারতের শিলিগুড়ি করিডোর ব্যবহার করে সড়কপথে নেপালের সাথে সহজ যোগাযোগ স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত ডা. বংশিধর মিশ্র।

বৃহস্পতিবার দুপুরে শেরপুরের নালিতাবাড়ী নাকুঁগাও স্থলবন্দর পরিদর্শনকালে এর সম্ভাব্যতা যাচাই শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এ কথা বলেন তিনি।

রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ ও নেপালের সম্পর্ক বন্ধুর মতো। জাতিগতভাবে আমরা প্রায় একই। এই দুই দেশের মানুষের মধ্যে সংস্কৃতি, ব্যবসা-বাণিজ্য ও মানুষের সাথে মানুষের সম্পর্ক বৃদ্ধির লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। তারই ধারাবাহিকতায় ভারতের শিলিগুড়ি করিডোর ব্যবহার করে সড়কপথে নেপালের সাথে সহজ যোগাযোগ স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

ডা. বংশিধর মিশ্র আরও বলেন, করোনা মহামারীর পর বাংলাদেশের সাথে আরও বেশকিছু চুক্তি সম্পাদন করতে পারবো বলে আশা করছি। তাই এখানকার যোগাযোগ ব্যবস্থা ও সুযোগ-সুবিধা পর্যবেক্ষণ করে গেলাম। পরবর্তীতে চুক্তি করার লক্ষ্যে এ বিষয়গুলো কাজে আসবে।

এই বন্দর দিয়ে ভুটানের সাথে যোগাযোগ রয়েছে, তবে নেপালের সাথে কেনো নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, নেপালের সাথে যোগাযোগের জন্য এই স্থলবন্দর হতে পারে ভালো একটি মাধ্যম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুক্তাদিরুল আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নালিতাবাড়ী সার্কেল) আফরোজা নাজনীন, পৌর মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিকসহ অনেকে।