টাইগারদের ভাগ্যবদল হবে কি?

ক্রীড়া প্রতিবেদক;
  • প্রকাশিত: ২ নভেম্বর ২০২১, ১:৫৩ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৪ সপ্তাহ আগে

অনুশীলনে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আকাশচুম্বী না হলেও বাংলাদেশ দলের উপর প্রত্যাশার চাপটা নেহায়েত কম নয়। সবসময় টাইগারদের সাফল্যমন্ডিত একটা ছবি খোদাই করা থাকে দেশবাসীর মনের আয়নায়। এদিকে টানা তিন হারে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেছে বাংলাদেশ। অবশ্য কাগজে-কলমে সেমিফাইনালের ক্ষীণ আশাও আছে। কিন্তু সেটা বাস্তবতায় আসতে অনেক কিছু মিরাকল একসঙ্গে ঘটতে হবে। যা আসলে অবাস্তব।

কিন্তু এখনো অনেক কিছু পাবার আশায় রয়েছেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। তার লক্ষ্য আসরের বাকি থাকা দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জিতে শেষটা মধুর করা। আর সেই লক্ষ্যে সুপার টুয়েলভে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে টাইগাররা মুখোমুখি হচ্ছেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। আজ মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) আবুধাবিতে বিকেল ৪টায় শুরু হতে যাওয়া ম্যাচেই দল বেরোতে চায় হারের বৃত্ত থেকে।

এর আগে দুই দিন বিশ্রামের পর গতকাল অনুশীলনে আসা বাংলাদেশ দলটাকে বেশ ফুরফুরে দেখা গেছে। দুবাইয়ের আইসিসি একাডেমিতে অনুশীলনে প্রাণবন্ত ছিলেন ক্রিকেটাররা।

যদিও প্রোটিয়ারা দল হিসেবে বাংলাদেশের চেয়ে বেশ শক্তিশালী। টি-টোয়েন্টি সংস্করণে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে মুখোমুখি দেখায় ছয়টি ম্যাচেই হেরেছে টাইগাররা। বিশ্বকাপে তিন ম্যাচের দুটি জিতে সেমির স্বপ্ন দেখছে দলটি। টানা তিন ম্যাচ হারলেও বাংলাদেশকে আজকের ম্যাচে সমীহ করছে প্রোটিয়া বাহিনী। কোনোভাবেই বাংলাদেশ দলকে হালকাভাবে নেবে না তারা। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই বলেছেন প্রিটোরিয়াস।

এদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ বলে হারের মধ্য দিয়েই বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলার আশা প্রায় শূন্যের কোটায় চলে এসেছে। ক্রিকেটাররাও বাস্তবতা বুঝে গেছেন। এর মাঝে ইনজুরির ধাক্কায় বড় ভরসা সাকিব আল হাসানও ছিটকে গেছেন। এখন পাওয়া-না পাওয়ার সমীকরণ, পিছুটান, হারানোর ভয় উবে গেছে। বিশ্বকাপ মিশনের শেষের দুয়ারে টাইগার শিবির।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে স্পিনেই আটকানোর চিন্তা করছে বাংলাদেশ। সাকিব আল হাসান না থাকায় দলের ভারসাম্য, কম্বিনেশনে পরিবর্তন আসছে। গুঞ্জন আছে, শামীম হোসেন পাটোয়ারির বিশ্বকাপ অভিষেক হয়ে যেতে পারে আজ।

শেষান্তে এসে পড়লেও বাংলাদেশ সেরাটা দিতে চায় প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে। গতকাল হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘এই বিশ্বকাপে সম্ভবত আমাদের সুযোগ শেষ। কিন্তু আমাদের কাল (আজ) অনেক কিছু করতে হবে। এবং ছেলেরা ভালো পারফরম্যান্স করতে প্রত্যয়ী। তারা জানে যে, ম্যাচ জিততে না পারায় তারা অনেককে হতাশ করেছে। কালও (আজ) তারা দেশের জন্য খেলবে। এবং তারা নিজেদের শতভাগ দিবে।’

আজ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয়ের খাতা খুলতে চান ডমিঙ্গো। গত ১৪ বছর ধরে বয়ে বেড়ানো বিশ্বকাপের মূল পর্বে জয়ের খরা কাটাতে আশাবাদী তিনি। প্রোটিয়া এই কোচ বলেছেন, ‘টি-২০ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশের জয় মাত্র একটি। রেকর্ডে উন্নতি আনার সুযোগ এটি। চেষ্টা করবো দুটি ম্যাচ জিততে। আমরা কাল (আজ) হিসাবের (জয়ের) খাতা খুলতে চাই।’

অনেক সংগ্রাম, তিক্ততার পর চাপহীন মঞ্চে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। আজ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টাইগারদের ভাগ্য বদল হোক, এমনটাই সবার আশা।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...