ঢাকারবিবার , ২০ মার্চ ২০২২

রাবাদা তাণ্ডবে বিপাকে টাইগাররা

ক্রীড়া ডেস্ক
মার্চ ২০, ২০২২ ৮:০৪ অপরাহ্ন
Link Copied!

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ইতিহাস গড়ার লক্ষ্যে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে বিপাকে পড়ছে বাংলাদেশ দল। ম্যাচের ১২ ওভারের মাথাই সাজঘরে ফিরে গেছে পাঁচ ব্যাটার। দলের খাতাও ও যোগ করতে পারেনি পরিমাণ মত রান। ৫ উইকেটের তিনটি পেস বোলার কাগিসো রাবাদার শিকার।

রোববার দুপুর জোহানেসবার্গের দ্যা ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল খান।

ব্যাটিং করতে শুরুতে নামে তামিম ইকবাল এবং লিটন দাস। তৃতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলে লুঙ্গি এনগিডির শিকার হয় অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

প্রায় একই লেন্থে ছিল পরপর দুই ডেলিভারি। আগের বলটি হঠাৎ লাফিয়ে আঘাত হানে গ্লাভসে, আঙুলে সামান্য ব্যথা পেলেও কোনো সমস্যা হয়নি। প্রায় একই জায়গা থেকে একইভাবে লাফিয়ে ওঠা পরের ডেলিভারি আর ফেরাতে পারেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। লাফিয়ে ওঠা ডেলিভারিটি তামিমের গ্লাভসে লেগেই লেগে উঠে যায় আকাশে, শর্ট কভারে দাঁড়িয়ে সহজেই সেটি তালুবন্দী করেন কেশভ মহারাজ। ফলে মাত্র ১ রানেই সাজঘরে ফিরে যেতে হয়েছে বাঁহাতি ওপেনারকে।

এরপর নামেন আগের ম্যাচে দুর্দান্ত ইনিংস খেলা সাকিব আল হাসান। এই অলরাউন্ডার ও হাটেন অধিনায়কের দেখানো পথেই। তামিমের মতোই লাফিয়ে ওঠা ডেলিভারিতে কুপোকাত হয়েছেন সাকিব। কাগিসো রাবাদার করা নিজের দ্বিতীয় ও ইনিংসের চতুর্থ ওভারের তৃতীয় বলে ফ্লিক করতে চেয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু বল হাতে ব্যাটের বাইরের কানায় লেগে চলে যায় কভারে দাঁড়ানো কাইল ভেরেনের হাতে।

আউট হওয়ার আগে ছয় বল খেলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। এ নিয়ে ক্যারিয়ারে ১২তম ডাক তথা শূন্য রানে আউট হলেন সাকিব। তার আগে ৪ বলে ১ রান করে আউট হয়ে গেছেন তামিমও। শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে কঠিন চাপে বাংলাদেশ।

দুই দক্ষ ব্যাটার-এর বিদায়ের পর ইনিংস ধরে খেলার চেষ্টা করেন ওপেনিং এ নামা লিটন দাস এবং উইকেট রক্ষক মুসফিকুর রহিম। তবে হাল ধরার আগেই তাণ্ডব চালান আবার রাবাদা। ইনিংসের অষ্টম ওভারের প্রথম বলটিই খানিক টেনে খাটো লেন্থে করেন রাবাদা। হালকা সুইং করে ভেতরে ঢুকছিল সেই ডেলিভারি। বলের লাইন থেকে সরে যাওয়ার চেষ্টা করেও বাঁচতে পারেননি লিটন। বল তার ব্যাটের কানায় লেগে জমা পড়ে উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি ককের গ্লাভসে।

একই ওভারে সাজঘরে ফিরতে পারতেন পাঁচ নম্বরে নামা ইয়াসির আলি রাব্বিও। তবে স্লিপে দাঁড়িয়ে তার সহজ ক্যাচ ছেড়ে দেন প্রথম স্লিপের ফিল্ডার জানেমান মালান। রাব্বি বেঁচে গেলেও, বাঁচেননি লিটন। তিনি আউট হওয়ার আগে ২১ বলে করেছেন ১৫ রান।

ইয়াসির আলি রাব্বি অষ্টম ওভারে বেঁচে গেলেও রক্ষা হয়নি ১১ তম ওভারে। ১১তম ওভারের শেষ বলে রাবাদার করা শর্ট বাউন্সার রাব্বির ব্যাটের কোনায় লেগে সোজা হাতে চলে যায় শর্ট কভারে দাঁড়িয়ে থাকা কেশভ মহারাজ। আউট হওয়ার আগে ১৪ বলে ২ রান করেছিলেন।

এর পরের ওভারেই ফেরেন উইকেট রক্ষক মুসফিকুর রহিম। ১২ তম ওভারের ৪র্থ বলে ওয়েন পারনেল এর বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি।আউট হওয়ার আগে ৩১ বলে করেছেন ১২ রান।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ১৪ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৪৫ রান। ব্যাটিং বিপর্যয় সামাল দেয়ার মিশনে ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে খেলছেন মাহমুদুল্লা রিয়াদ ও আফিফ হোসেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।