ঢাকা ০৯:৪১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে হকার-পুলিশ সংঘর্ষে দুই মামলা, আসামি ৩৫

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট : ০৫:৫৪:১৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / 95
চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানার নিউমার্কেট ও স্টেশন রোড এলাকায় ফুটপাতের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে পুলিশ ও হকারদের সংঘর্ষের ঘটনায় দুইটি মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সিটি করপোরেশন ও পুলিশের পক্ষ থেকে কোতোয়ালি থানায় আলাদাভাবে মামলা দুটি করা হয়। শ্রমিক লীগ, হকার্স লীগ, মেট্রোপলিটন হকার্স সমিতি, ফুটপাত হকার্স সমিতির নেতাদের আসামি করা হয়েছে সেখানে।

পুলিশের করা মামলায় ৩৫ জন এবং সিটি করপোরেশনের করা মামলায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

সিটি করপোশেনের করা মামলায় এজাহার নামীয় ১১ জন পুলিশের মামলাও আসামি বলে জানান সহকারী কমিশনার অতনু।

দুই মামলাতেই প্রধান আসামি করা হয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হকার্স সমিতির ক্রীড়া সম্পাদক মো. মাসুমকে। এছাড়া সমিতির সাধারণ সম্পাদক মিরণ হোসেন মিলন, হকার্স লীগের সাবেক সভাপতি ঋষি বিশ্বাস, ফুটপাত হকার্স সমিতির সভাপতি নুরুল আলম লেদু, মহানগর শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি কামাল উদ্দিন চৌধুরীর নাম রয়েছে দুই মমলায়।

গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত নগরীর বিআরটিসি ফলমণ্ডি এলাকা থেকে নিউ মার্কেটের আমতল পর্যন্ত ফুটপাতে অভিযান চালিয়ে হাজারখানেক হকার উচ্ছেদ করে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন।

চার দিনের মাথায় সোমবার দুপুরে ফুটপাত পুনর্দখল ঠেকাতে সিটি করপোরেশনের অভিযান চলাকালে নগরীর রেলস্টেশন এলাকায় ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।

রেলওয়ে স্টেশন, বিআরটিসি ফলমণ্ডি এলাকা থেকে নিউ মার্কেটের আমতল পর্যন্ত সংঘর্ষে পুলিশ, হকার ও সিটি করপোরেশনের কর্মীসহ প্রায় ১৫ জন আহত হন। ভাঙচুর করা হয় করপোরেশনের কয়েকটি গাড়ি।

অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনের পরও ঘণ্টাখানেক ধরে চলে সংঘর্ষ। এ সময় পুলিশের টিয়ার সেল ও গুলির শব্দে এলাকায় উত্তেজনা ও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিও ছোড়ে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

চট্টগ্রামে হকার-পুলিশ সংঘর্ষে দুই মামলা, আসামি ৩৫

আপডেট : ০৫:৫৪:১৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানার নিউমার্কেট ও স্টেশন রোড এলাকায় ফুটপাতের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে পুলিশ ও হকারদের সংঘর্ষের ঘটনায় দুইটি মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সিটি করপোরেশন ও পুলিশের পক্ষ থেকে কোতোয়ালি থানায় আলাদাভাবে মামলা দুটি করা হয়। শ্রমিক লীগ, হকার্স লীগ, মেট্রোপলিটন হকার্স সমিতি, ফুটপাত হকার্স সমিতির নেতাদের আসামি করা হয়েছে সেখানে।

পুলিশের করা মামলায় ৩৫ জন এবং সিটি করপোরেশনের করা মামলায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

সিটি করপোশেনের করা মামলায় এজাহার নামীয় ১১ জন পুলিশের মামলাও আসামি বলে জানান সহকারী কমিশনার অতনু।

দুই মামলাতেই প্রধান আসামি করা হয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হকার্স সমিতির ক্রীড়া সম্পাদক মো. মাসুমকে। এছাড়া সমিতির সাধারণ সম্পাদক মিরণ হোসেন মিলন, হকার্স লীগের সাবেক সভাপতি ঋষি বিশ্বাস, ফুটপাত হকার্স সমিতির সভাপতি নুরুল আলম লেদু, মহানগর শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি কামাল উদ্দিন চৌধুরীর নাম রয়েছে দুই মমলায়।

গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত নগরীর বিআরটিসি ফলমণ্ডি এলাকা থেকে নিউ মার্কেটের আমতল পর্যন্ত ফুটপাতে অভিযান চালিয়ে হাজারখানেক হকার উচ্ছেদ করে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন।

চার দিনের মাথায় সোমবার দুপুরে ফুটপাত পুনর্দখল ঠেকাতে সিটি করপোরেশনের অভিযান চলাকালে নগরীর রেলস্টেশন এলাকায় ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।

রেলওয়ে স্টেশন, বিআরটিসি ফলমণ্ডি এলাকা থেকে নিউ মার্কেটের আমতল পর্যন্ত সংঘর্ষে পুলিশ, হকার ও সিটি করপোরেশনের কর্মীসহ প্রায় ১৫ জন আহত হন। ভাঙচুর করা হয় করপোরেশনের কয়েকটি গাড়ি।

অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনের পরও ঘণ্টাখানেক ধরে চলে সংঘর্ষ। এ সময় পুলিশের টিয়ার সেল ও গুলির শব্দে এলাকায় উত্তেজনা ও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিও ছোড়ে।